ঘোষিত হল রাজ্য বিজেপির পূর্ণাঙ্গ কমিটি, রাজ্য কর্মসমিতিতে আনা হল শোভনকে

ঘোষিত হল রাজ্য বিজেপির পূর্ণাঙ্গ কমিটি, রাজ্য কর্মসমিতিতে আনা হল শোভনকে

আজবাংলা     শোভন বিজেপিতে রয়েছেন কিনা, তা নিয়ে গত কয়েক মাস ধরেই নানা জল্পনা সামনে আসছিল। কারণ এক বছর আগে বিজেপিতে যোগ দিলেও, এখনও পর্যন্ত সক্রিয় ভাবে বিজেপির হয়ে মাঠে নামতে দেখা যায়নি তাঁকে। তার উপর যে চিরাচরিত অভ্যাস মেনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে ভাইফোঁটা নিতে গিয়েছিলেন তিনি।

মুখ্যমন্ত্রীর এক ডাকেই যে ভাবে কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে যোগ দিয়েছিলেন, তাতে সেই জল্পনা আরও জোর পায়। শোভন এবং বৈশাখীর আসল অবস্থানটা ঠিক কী, তা নিয়ে নানা গুঞ্জনও শুরু হয়ে যায়। তার মধ্যেই বিশেষ আমন্ত্রিত সদস্য হিসেবে এ দিন রাজ্য বিজেপির কর্মসমিতিতে শোভনের নাম অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষের পূর্ণাঙ্গ ওই কমিটিতে কে কে রয়েছেন এ দিন সাংবাদিক বৈঠকে তা ঘোষণা করেন রাজ্য বিজেপির অন্যতম সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু।যে তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে তাতে নাম রয়েছে মোট ২৩০ জনের। এর মধ্যে বিশেষ আমন্ত্রিত ২১ জন আর স্থায়ী আমন্ত্রিত ১১০ জন।

রাজ্য কমিটির সদস্য, পদাধিকারী-সহ ৯৬ জন। এই কমিটিতে সেলিব্রিটি, চিকিৎসক, অধ্যাপক, ক্রীড়া জগতের বিশিষ্ট জনকে স্থান দেওয়া হয়েছে। মহিলাদের মধ্যে নতুন মুখ জ্যোর্তির্ময়ী শিকদার, অর্চনা মজুমদার, দেবযানী সেনগুপ্ত, বীথিকা মণ্ডল ও বিশ্বভারতীর অধ্যাপিকা মধু ছন্দা কর।

রাজ্যসভার সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত ও রূপা গঙ্গোপাধ্যায় এবং রন্তিদেব সেনগুপ্তকে বিশেষ আমন্ত্রিত সদস্য করা হয়েছে রাজ্য কমিটিতে। আবার অভিনেতা সুমন বন্দ্যোপাধ্যায়, প্রাক্তন ফুটবলার বাবু মানি ও ষষ্ঠী দুলেরা রাজ্য কমিটির বিশেষ আমন্ত্রিত সদস্য হয়েছেন। এছাড়া রয়েছেন দলের একাধিক সাংসদ।

সমস্ত বিতর্ক কাটিয়ে রাজ্য কমিটিতে স্থায়ী আমন্ত্রিত সদস্য হিসেবে জায়গা পেয়েছেন মুকুলপুত্র শুভ্রাংশু রায়ও। আবার দলের পুরনো মুখ কমল বেরিওয়াল, অসীম সরকার এবং দুধকুমার মণ্ডলরা রাজ্য কমিটিতে এসেছেন স্থায়ী আমন্ত্রিত হিসেবে। রয়েছেন জয় বন্দ্যোপাধ্যায়ও। শঙ্কুদেব পন্ডাকেও রাজ্য কমিটির স্থায়ী আমন্ত্রিত সদস্য করা হয়েছে।

এছাড়া রাজ্য কমিটির সদস্য করা হয়েছে প্রাক্তন বিধায়ক শমীক ভট্টাচার্য ও প্রাক্তন যুব নেতা অমিতাভ রায়কে। রয়েছেন প্রয়াত কেন্দ্রীয়মন্ত্রী ও প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি তপন শিকদারের ভাইপো সৌরভ শিকদার এবং দীপ্তিমান সেনগুপ্তরাও। নতুন সদস্য হিসেবে জায়গা পেয়েছেন প্রাক্তন ক্রীড়াবিদ জ্যোতির্ময়ী শিকদার ও অভিনেত্রী দেবিকা মুখোপাধ্যায়রা।

যুব ও মহিলা-সহ সমস্ত মোর্চার সভাপতি, দলের জেলা সভাপতি ও প্রাক্তন জেলা সভাপতিদের রাজ্য কমিটিতে স্থায়ী আমন্ত্রিত করে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। পদাধিকার বলে রাজ্য কমিটিতে বিশেষ আমন্ত্রিত হিসেবে রয়েছেন রাহুল সিনহা, মুকুল রায় ও প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি অসীম ঘোষ। তবে নতুন রাজ্য কমিটিতে নাম ওঠেনি দলের প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি তথাগত রায়ের।