নদীয়ার মহিলা পরিচালিত দুর্গাপুজোয় রাতভোর ভাঙচুর করল দুষ্কৃতীরা

নদীয়ার মহিলা পরিচালিত দুর্গাপুজোয় রাতভোর ভাঙচুর করল দুষ্কৃতীরা

  শান্তিপুর :- গতকাল মধ্যরাতে শান্তিপুর শহরের এক নম্বর ওয়ার্ডের রামকৃষ্ণ কলোনিতে মহিলা পরিচালিত দুর্গাপূজা উপলক্ষে রাস্তার পাশে লাগানো সুসজ্জিত ছটি এলইডি লাইটের বোর্ড ভাঙচুর করে  দুষ্কৃতীদের একটি দল। সিসি ক্যামেরার রেকর্ড অনুযায়ী দেখা যায় রাত 1:45 নাগাদ ওই দুষ্কৃতী এবং তার সহকারী 5 জন রামকৃষ্ণ কলোনির রাস্তায় দুপাশে লাগানোর এলইডি বোর্ড ভাঙচুর করে,

কিছুটা দূরে রাখা সনত দেবনাথের একটি প্রাইভেট কারের কাচের অংশ সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস করা হয়, গাড়ির বনেটের উপর, ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপ মারা হয়েছে বলেই অনুমান করা হয়েছে এলাকাবাসী তাদের পক্ষ থেকে। তারা জানান পাশের পাড়া হরেকৃষ্ণ পল্লীর বাসিন্দা প্রবীর দাসের ছেলে সুদীপ দাস দেড় ভাই নামে কুখ্যাত সমাজবিরোধীকে এই জঘন্য তাণ্ডব চালাতে দেখা যায় সিসি ক্যামেরার ফুটেজ অনুযায়ী ।

রামকৃষ্ণ কলোনি পুজো উদ্যোক্তাদের মধ্যে থেকে সনৎ মিত্র জানান, এই ঘটনার কিছু আগে শান্তিপুরের এক প্রসিদ্ধ ব্যবসায়ীর কাছ থেকে জোরপূর্বক টাকা আদায়ের জন্য যায় ওই দুষ্কৃতী দলটি, এর আগেও একাধিক অসামাজিক কাজকর্ম সঙ্গে যুক্ত ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তারের দাবিতে শান্তিপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ জমা করা হয়েছে পাড়ার পক্ষ থেকে।

গাড়ির মালিক সন দেবনাথ জানান এ ধরনের অসামাজিক কাজকর্ম অবিলম্বে বন্ধ করার দাবিতে, এবং তদন্ত করে গাড়ি ভাঙচুর করা ওই দুষ্কৃতী শাস্তির দাবি করে শান্তিপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছি। ঘটনাস্থলে শান্তিপুর থানার প্রশাসন এসে সমগ্র বিষয়টি খতিয়ে দেখে, এবং ওই দুষ্কৃতী পলাতক হওয়ার কারণে তার খোঁজে সমস্ত রকম তল্লাশি চালাচ্ছে শান্তিপুর থানা।