হিন্দু ধর্মবিশ্বাসী দের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতের অভিযোগ তৃণমুলের বিরুদ্ধে

হিন্দু ধর্মবিশ্বাসী দের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতের অভিযোগ তৃণমুলের বিরুদ্ধে

মালদা   মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেবী দুর্গার মতো তুলনা করে তার দশোভূজা মূর্তি বানানো হয়েছে এবং তার কোলে দুর্গার পুত্র গণেশকে বসিয়ে চলছে গণেশ চতুর্থীতে গণেশ বন্দনা। মণ্ডপে দেখা গেল দেবী দুর্গার প্রতিরূপ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নীল সাদা শাড়ি রুপে দশ হাতে কন্যাশ্রী, সবুজ সাথীর মত বিভিন্ন ধরনের প্রকল্পের চিত্র হাতে নিয়ে দুই হাতে গনেশকে কোলে নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন।

প্রথমবারের এই পুজো উদ্বোধন করতে আসেন জেলা তৃণমূলের নেতারা। আর এমন ঘটনায় চাঞ্চলা ছড়িয়েছে মালদার হরিশ্চন্দ্রপুর এলাকার। জানা গিয়েছে মনোজ সরকার নামের এক যুব তৃণমুলের সহ  সভাপতি ও  এলাকার তৃণমূল নেতা-কর্মী সমর্থকদের দ্বারা পরিচালিত হরিশ্চন্দ্রপুরের জাগরন সংঘ ক্লাবে এমনই একটি প্রতিমা মূর্তি গড়ে হিন্দু ধর্মবিশ্বাসী দের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত এনেছে  বলে অভিযোগ। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক গ্রাম বাসিরা জানান গণেশ চতুর্থীতে গণেশ বন্দনা বাদ দিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেবী দুর্গার মতো তুলনা করে তার দশোভূজা মূর্তি বানানো ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত তৃণমূল। অন্য দিকে মালদা তৃণমূল জেলা সভাপতি আব্দুর রহিম বক্সি বলেন আমার জানানেই তবে তৃণমূলকে বদনাম করার জন্য কেউ করতে পারে।  

শিবসেনার মালদহ জেলা সভাপতি উত্তম নন্দী বলেন হিন্দু ধর্ম নিয়ে তৃণমূলী নেতাদের মানসিকতার এই প্রতিফলন, এটা নিন্দনীয়, এটাকে ধিক্কার জানাই, সনাতনী মাকে বিধবার সাজে সাজানো কোন ভাবেই সমর্থন করতে পারছি না। জেলা বিজেপি সভাপতি গোবিন্দ চন্দ্র মন্ডল বলেন,দেবীরুপি মমতা কখনো মেনে নেওয়া যায় না। তারা সংস্কৃতির অপবএবহার করছে। এই বিষয়ে ব্যবস্থা না নিলে আমরা আন্দোলনে নামবো। অবিলম্বে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে হবে।