স্বঘোষিত গুরু নিত্যানন্দের হিন্দু রাষ্ট্র কৈলাসের জন্য চালু করলেন ভিসা

স্বঘোষিত গুরু নিত্যানন্দের হিন্দু রাষ্ট্র  কৈলাসের জন্য চালু করলেন ভিসা

কৈলাসে যাওয়ার অভিনব সুযোগ আনছেন বাবা নিত্যানন্দ। কোনও ঝামেলাই নেই। বাবাজির সঙ্গে যোগাযোগ করলেই তিন দিনের ভিসা ফটাফট পৌঁছে যাবে। সঙ্গে প্রাইভেট জেট। কৈলাস নামে নিত্যানন্দের রাষ্ট্রে তিনি স্ব-নিয়োজিত প্রধানমন্ত্রী। ৫০টি আদালতের শুনানিতে গরহাজির হওয়ার পর নিত্যানন্দ ভারত ছাড়ার পরই তথাকথিত এই কৈলাস রাষ্ট্রটি গত বছরের নভেম্বর থেকে মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে। 

নিত্য নতুন ভিডিও পোস্ট করছেন। কৈলাস ভ্রমণের বিজ্ঞাপন অবশ্য ভিডিওতেই দিয়েছেন। বাবা বলেছেন, কৈলাসের দরজা খুলে দেওয়া হয়েছে আমজনতার জন্য। তার জন্য অবশ্য একটু কষ্ট করতে হবে। প্রথমে অস্ট্রেলিয়া যেতে হবে। তারপর সেখান থেকে বাবার গরুড় কৈলাসে উড়িয়ে নিয়ে যাবে। তবে তিন দিনের বেশি কৈলাসে থাকার বায়না করা যাবে না।

মাত্র তিনদিনই কৈলাস দর্শন করতে পারবেন পর্যটকরা। টাকাপয়সার রাখারও অসুবিধা নেই। নিজের ওয়েবসাইটে কিছুদিন আগেই নিত্যানন্দ জানিয়েছিলেন যে গণেশ চতুর্থীর পুণ্যলগ্নে দেশের জন্য ব্যাঙ্ক এবং মুদ্রার ঘোষণা করবেন তিনি। নিজের দেশে আস্ত একটা ব্যাঙ্ক খুলছেন। নাম দিয়েছেন রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ কৈলাস।

কৈলাসের মুদ্রায় আছে ৭৭ ধরনের কয়েন। সবই নাকি সোনা দিয়ে তৈরি। কৈলাসের ডলারও আছে। এক কৈলাসিয়ান ডলার এক তোলা সোনার সমান, অর্থাত্‍ ১১.৬৬ গ্রাম সোনা। নিত্যানন্দের দেশের আন্তর্জাতিক স্তরে স্বীকৃতি না থাকায় আপাতত আন্তর্জাতিক স্তরে এই মুদ্রা ব্যবহার করা যাবে না। শুধুমাত্র কৈলাসেই এই টাকাপয়সার লেনদেন চলবে।

এর মধ্যেই বলে রাখা ভাল, এ কৈলাস অবশ্য সে কৈলাস নয়। এ হল বাবা নিত্যানন্দের নিজের দেশ। ইকুয়েডরের কাছে একটা আস্ত দ্বীপের নাম হয়েছে কৈলাস। সাঙ্গোপাঙ্গো নিয়ে এখানেই নাকি নতুন ডেরা বেঁধেছেন স্বঘোষিত ধর্মগুরু নিত্যানন্দ। গড়ে তুলেছেন নিজের আলাদা এক সাম্রাজ্য।

'নতুন দেশ', নিজের সাম্রাজ্যকে এভাবেই ব্যাখ্যা করে একটা ওয়েবসাইটও খুলে ফেলেছেন নিত্যানন্দ। স্বঘোষিত ধর্মগুরুর ভাষায়, তাঁর নতুন দেশ' নাকি বিশ্বের সবচেয়ে বড় 'হিন্দু রাষ্ট্র' । গোটা দ্বীপে নাকি একাধিক মন্দির তৈরি করিয়েছেন নিত্যানন্দ। গাছপালা ঘেরা আশ্রমে যোগচর্চার বন্দোবন্দও আছে। আর আছে গুরুকুল আশ্রম।

শিষ্যদের জন্য বিনামূল্যে থাকা, খাওয়া, চিকিত্‍সার ব্যবস্থাও আছে সেখানে।  মাঝে অবশ্য শোনা গিয়েছিল, ইকুয়েডরে বিশেষ সুবিধা করতে না পেরে ফের গা ঢাকা দিয়েছেন নিত্যানন্দ। ক্যারিবিয়ান সাগরের কাছে বেলিজ উপকূলই নাকি বর্তমান ঠিকানা 'গডম্যান'-এর। সিবিআইয়ের এক সূত্র জানাচ্ছে, সম্ভাবনা রয়েছে ক্যারিবিয়ানেই নতুন ডেরা বেঁধেছেন স্বঘোষিত ধর্মগুরু। যদিও তাঁর বর্তমান আস্তানার খোঁজ মেলেনি।

কৈলাস আসলে কী কৈলাসের ওয়েবসাইট অনুযায়ী, কৈলাস প্রতিষ্ঠা করেছে এমন কিছু বহিষ্কৃত ব্যক্তিরা, যাঁরা তাঁদের নিজেদের দেশে হিন্দুধর্মের সত্যতা অনুশীলনের অধিকারকে হারিয়েছেন। এই দেশের নিজস্ব পাসপোর্ট ও পতাকা রয়েছে। যা সকলকে হতচকিত করে দিয়েছে।

কৈলাসায় সরকারিভাবে ইংলিশ, সংস্কৃত ও তামিল ভাষায় সব ধরনের কাজকর্ম হয়ে থাকে। কৈলাস দেশটির দাবি, তাদের দেশের জনসংখ্যা ১ কোটি আদি শিবায়ত, ২ বিলিয়ন হিন্দু অনুশীলনকারী। আরও দাবি করা হয়েছে যে দক্ষিণ এশিয়ার ৫৬ জন প্রকৃত বৈদিক জাতি রয়েছে। কৈলাসের নিজস্ব সমস্ত মন্ত্রক ও বিভাগ রয়েছে।