ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে হলুদের ব্যবহার

ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে হলুদের ব্যবহার

হলুদের গুণাগুণ অসীম। সবজিতে হলুদ যোগ করলে শুধু এর স্বাদই বাড়ে না, আপনি এটিকে আয়ুর্বেদিক ওষুধ হিসেবেও ব্যবহার করতে পারেন। অনেকেই বিশেষ করে মহিলারা ত্বকের উজ্জ্বলতার জন্য হলুদ ব্যবহার করেন। এতে কোনো ক্ষতি নেই, তবে ব্যবহারের সময় কিছু ভুল করা থেকে বিরত থাকতে হবে। তাহলে জেনে নেওয়া যাক ভুলগুলো সম্পর্কে।

১.সাবান বা ফেসওয়াশ দিয়ে শরীর ধোবেন না- আপনি যদি আপনার ত্বকে হলুদ লাগান তবে কিছুক্ষণ পরে এটি জল দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। কিন্তু সেই শুকনো হলুদ ধোয়ার জন্য অনেকেই সাবান বা ফেস ওয়াশ ব্যবহার শুরু করেন। আপনিও যদি এমন ভুল করে থাকেন, তাহলে আজই তা বন্ধ করুন। সাবান দিয়ে ধুলে হলুদের প্রভাব নষ্ট হয়ে যায়। যার কারণে হলুদ লাগিয়ে কোনো উপকার পাবেন না। 

২.মিশ্রণের প্রভাব পরীক্ষা করে দেখুন- আপনি যদি ত্বকে লাগাতে হলুদের সঙ্গে অন্য কিছু যোগ করে থাকেন তবে প্রথমে এর প্রভাব দেখুন। আপনি যদি শরীরের যে কোনও জায়গায় এই মিশ্রণে অ্যালার্জি অনুভব করেন তবে অবিলম্বে সেই জায়গাটি পরিষ্কার জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দেরি করার পরে, আপনার শরীরের সেই অংশে চুলকানি এবং দাগ হতে পারে। এর পাশাপাশি, আপনার অন্যান্য স্বাস্থ্য-সম্পর্কিত সমস্যাও হতে পারে। 

৩.দীর্ঘসময় ধরে হলুদ লাগানো থেকে বিরত থাকুন- অনেক মহিলাই শরীরের সৌন্দর্য বাড়াতে দীর্ঘক্ষণ হলুদ লাগাতে পছন্দ করেন। হলুদ লাগানোর ক্ষেত্রে এটা ভুল উপায়। আমাদের বুঝতে হবে হলুদের প্রভাব গরম। এমন অবস্থায় ত্বকে হলুদ লাগিয়ে রাখার পর সেখানে দাগ পড়তে শুরু করে। তাই কিছুক্ষণ পর হলুদ শুকিয়ে গেলেই পরিষ্কার জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে করে আপনি বেশি উপকার পাবেন। 

৪.গরমে কম ব্যবহার করুন- সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এবং জরুরি বিষয়। গরমে হলুদ পেস্ট আকারে শরীরে কম লাগান। আপনি যদি লাগাতে চান তবে এতে দই বা সামান্য বেসন যোগ করুন। এটি করার ফলে, এর গরম প্রভাবে কিছুটা শীতলতা আসে, যা গ্রীষ্মে আরাম দেয়। এরপর কিছুক্ষণ ওই মিশ্রণটি শরীরে লাগিয়ে উজ্জ্বল ত্বক পেতে পারেন।