হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হলেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হলেন  প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী

আজ বাংলা: প্রয়াত হলেন গুজরাটের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কেশুভাই প্যাটেল। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৯২ বছর। কয়েকদিন আগেই তাঁর করোনা ধরা পড়ে। বৃহস্পতিবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি প্রয়াত হন বলে জানা গিয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে তাঁর শারীরিক পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়। তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় বর্ষীয়ান এই রাজনীতিবিদকে। চিকিত্‍সা চলাকালীন মৃত্যু হয় তাঁর।নিরামিশাষী ছিলেন বিজেপির এই নেতা। গুজরাতের দু'বারের মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছিলেন কেশুভাই প্যাটেল।

সর্বভারতীয় সংবাদসংস্থা টাইমস অফ ইন্ডিয়ার খবর অনুযায়ী নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন প্রয়াত এই রাজনীতিবিদ।সেপ্টেম্বর মাসে তাঁর করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছিল। তবে করোনার কোনও উপসর্গ দেখা যায়নি তাঁর শরীরে। বয়স বেশি থাকার কারণে বাড়িতে বিশ্রামে ছিলেন। চিকিত্‍সকরা নিয়মিত তাঁর শারীরিক পরিস্থিতি দেখতেন।

জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে আচমকা তাঁর শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। দ্রুত আহমেদাবাদের একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে। তাঁকে বাঁচাতে সবরকম চেষ্টা করেছিলেন চিকিত্‍সকরা। শেষমেশ চিকিত্‍সকদের সব প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে প্রয়াত হন কেশুভাই প্যাটেল। গুজরাতের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর প্রয়াণে শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

টুইটে প্রধানমন্ত্রী লিখেছেন, ''আমাদের প্রিয় ও শ্রদ্ধেয় কেশুভাই প্রয়াত হয়েছেন। তিনি ছিলেন এক অসামান্য নেতা। যিনি সমাজের প্রতিটি অংশের প্রতি যত্নবান ছিলেন। তাঁর জীবন গুজরাতের অগ্রগতি এবং প্রতিটি গুজরাটির ক্ষমতায়নের জন্য নিবেদিত ছিল।''নরেন্দ্র মোদী গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার ঠিক আগে পরপর দু'বার সেরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছিলেন কেশুভাই প্যাটেল।উল্লেখ্য, তিনি দু'দুবার মুখ্যমন্ত্রীর পদ সামলেছিলেন।