কেকে-র মৃত্যু বিতর্কে এবার চাঞ্চল্যকর তথ্য

কেকে-র মৃত্যু বিতর্কে এবার চাঞ্চল্যকর তথ্য

কেকে-র (KK) মৃত্যু বিতর্কে (Singer KK Death) এবার চাঞ্চল্যকর তথ্য । সূত্রের খবর, নজরুলমঞ্চে (Nazrul Mancha) অনুষ্ঠানের দিন আসনসংখ্যার অতিরিক্ত পাস বিলি করা হয়েছিল। নজরুলমঞ্চে আসন সংখ্যা ২৫০০। ইউনিয়নের দাবি, ওই দিন সেই আসনসংখ্যার থেকে বেশি টিকিট তারা ইস্যু করেননি। বাইরে থেকে জোর করে পড়ুয়ারা ঢুকেছিলেন শো দেখতে।

কিন্তু সংবাদ মাধ্যমের হাতে এল অন্য তথ্য। কি সেই তথ্য? কলেজের ইউনিয়নের ইস্যু করা একটি টিকিট। যে টিকিটের সিরিয়াল নম্বর ৪০২৩। সেই টিকিটের উলটো পিঠে কলেজের স্ট্যাম্পও রয়েছে। অর্থাৎ আসনসংখ্যার থেকে প্রায় দ্বিগুণ টিকিট বিলি করা হয়েছিল ওই দিন। যদিও ইউনিয়নের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, কিছু অতিরিক্ত পাস তারা বিলি করেছেন কিন্তু তা খুব বেশি নয়।

 কিন্তু সংবাদ মাধ্যমের হাতে যে পাস এসেছে তাতে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে সেদিন প্রায় ২০০০ পাস বেশি বিলি করা হয়েছিল। যদিও এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে কলেজের ইউনিয়ন কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে কোনও উত্তর পাওয়া যায়নি।  প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার নজরুল মঞ্চে কেকে-র অনুষ্ঠানের আগে তুমুল বিশৃঙ্খলা ছড়ায়। গুরুদাস কলেজের টিএমসিপি ইউনিট এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

সেই অনুষ্ঠানের আয়োজন ঘিরেই বিতর্ক। অনুষ্ঠানের পর কেকে-র অকালপ্রয়াণ যে বিতর্কে আরও ঘৃতাহুতি দিয়েছে। প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, এই মৃত্যুর দায় কার? অভিযোগ, সেদিন নজরুল মঞ্চে শুধু গুরুদাস কলেজের পড়ুয়ারা নয়। প্রচুর বহিরাগত পড়ুয়াও ভিড় করেছিল। আর যার ফলেই নজরুল মঞ্চে একটা অনিয়ন্ত্রিত ভিড় হয়। যেখানে মোট আসনসংখ্যা আড়াই হাজারের নীচে, সেখানে ভিড় হয় প্রায় ৭০০০।

অত ভিড়ে কাজ করেনি এসি। ৭টা দরজার ৫টা খোলা থাকলেও তাতে অবস্থা কিছুই বদলায়নি। একটা দমবন্ধকর পরিস্থিতি তৈরি হয়। ইতিমধ্যেই, এই সমস্ত অভিযোগ খতিয়ে দেখতে, তদন্তে নামছে কেএমডিএ (KMDA)। এমনকী কলেজ ফেস্ট (College Fest) ঘিরে বিলাসিতা নয়। টিএমসিপি (TMCP) নেতৃত্বকে কড়া বার্তা দিয়েছে তৃণমূল (TMC) নেতৃত্ব।