বিশ্বরেকর্ড গড়লেন এই ব্যক্তি! জেলে থেকে অর্জন করলেন ৩১ টি ডিগ্রি, পেলেন সরকারি চাকরি

বিশ্বরেকর্ড গড়লেন এই ব্যক্তি! জেলে থেকে অর্জন করলেন ৩১ টি ডিগ্রি, পেলেন সরকারি চাকরি

আজবাংলা      সকলেই জানেন মানুষ যখন খুব বড় দোষ করেন বা অন্যায় করেন তখন তাকে সাজা কাটানোর জন্য পাঠানো হয় সংশোধনাগারে | বেশ ভাগ মানুষ সেখানে গিয়ে মানসিক ভাবে ভেঙে পড়েন |  মানসিকভাবে বিপর্যস্তও হয়ে পড়েন | তারা ভাবেন তাদের যোবন হয়তো সেখানেই শেষ | তবে জেলে থেকেও যে নিজের জীবনকে নতুন করে নাম দিয়ে নতুন ভাবে শুরু করা যায় তা প্রমান করেদ দিলেন গুজরাতের ভানুভাই পটেল | 

গুজরাতের ভাবনগরের বাসিন্দা হলেন ভানুভাই পটেল | তিনি  আমেদাবাদের মেডিক্যাল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করেন | তারপর ১৯৯২ সালে তিনি মেডিক্যাল ডিগ্রি অর্জন করার জন্য আমেরিকায় যান | 

আমেরিকাতে তার এক বন্ধু স্টুডেন্ট ভিসা নিয়ে কাজ করতেন | নিজের সমস্ত অর্জন করা টাকা সে জমা করত ভানুভাই পটেলের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে | এখনই বিপদের মুখে পড়েন ভানুভাই | এরপরেই তাকে FERA আইনে গ্রেফতার করা হয়েছিল | এই অপরাধের কারণে ভানুভাইয়ের ১০ বছরের জন্য জেল হয় | 

ভানুভাই জেনে বন্দি ছিলেন ৫০ বছর বয়স থেকে ৫৯ বছর পর্যন্ত | সেই সময় জেলে থাকা সত্ত্বেও মানসিক ভাবে ভেঙে পড়েননি তিনি | নিজের ক্ষমতা নিজের পড়াশুনাকে চালিয়ে যান তিনি | জেলে থেকেই এই ৮ বছরে ৩১টি ডিগ্রি অর্জন অর্জন করেন ভানুভাই | 

একবার কেউ যখন জেলে যান বন্দি থাকেন তারপর জেল থেকে মুক্তি পেলেও অনেকেই আর স্বাভাবিক জীবনে ফেরত যেতে পারেন না | নিজের জীবন পুরোপুরি ভাবে ঘেটে যায় | এমনকি কোনো সরকারি চাকরিও পায় না | তবে ভানুভাইয়ের ক্ষেত্রে সেটা একেবারেই বিপরীত | 

ভানুভাই জেল থেকে মুক্তি পেতেই অম্বেদকর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চাকরির সুযোগ পান | শুধু তাই নয়, চাকরীর পাশাপাশি পরবর্তী ৫ বছরে আরও ২৩টি ডিগ্রি নিজের কৃতিত্বের ঝুলিতে ভরে নেন তিনি | বর্তমানে তাঁর ডিগ্রির সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ৫৪টি | 

পাশাপাশি জেলে বন্দি থাকার সময় ভানুভাই তিনটি ভাষায় তিনি বইও লেখেন | হিন্দি, গুজরাতি এবং ইংরেজি ভাষায় বইগুলো প্রকাশিত হয় |  ইংরেজি বইটির নাম দিয়েছেন ‘Behind Bars and Beyond’ | 

তার এই সাফল্যের কারণে ইতিমধ্যেই তিনি জায়গা করে নিয়েছেন এশিয়া বুক অফ রেকর্ডস, ইউনিক ওয়ার্ল্ড রেকর্ড, লিমকা বুক অফ রেকর্ডস, ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ড-এ |