ঝাড়ুতে এই জিনিসটা বেঁধে ফেলুন আর ভাগ্যের চমক দেখুন

ঝাড়ুতে এই জিনিসটা বেঁধে ফেলুন আর ভাগ্যের চমক দেখুন

আজবাংলা       ঝাড়ু আমাদের অত্যন্ত প্রয়োজনীয় একটি জিনিস। যা আমাদের নিত্য দিনের সঙ্গী। ঝাড়ু দিয়ে ঘরের নোংরা পরিষ্কার করা হয়। ঘরের যত ধুলো ময়লা সাফ করা হয়। ঝাড়ু কিন্তু একেবারেই হেলাফেলা করার জিনিস নয়।


ঝাড়ুর সাহায্যে ঘরের ধুলো ময়লা পরিষ্কার করা হয় অর্থাৎ ঘর থেকে অলক্ষ্মী বিদায় করা হয়। আর যত ক্ষণ ঘর থেকে অলক্ষ্মী বিদায় না করা হয়, তত ক্ষণ পর্যন্ত ঘরে মা লক্ষ্মী প্রবেশ করতে পারেন না।


সকালে ঝাড়ু দিয়ে ঘরের নোংরা পরিষ্কার করার রেওয়াজ প্রায় সব বাড়িতেই রয়েছে। ঘরে নোংরা ধুলো ময়লা থাকলে মা লক্ষ্মী ঘরে ঢোকার পথ পান না। লক্ষ্মী দেবীকে নিজের ঘরে বেঁধে রাখতে কে না চায়। ঘরে ধন-সম্পত্তি বৃদ্ধির জন্য ঝাড়ুর গুরুত্ব তাই অপরিসীম। 

তবে ঘরে ধন-সম্পত্তি ধরে রাখা বা চলে যাওয়ার পেছনে ঘরের ছোটখাটো বিষয়গুলি জড়িত। অনেকেই সকাল থেকে রাত পর্যন্ত পরিশ্রম করার পরও মনের মতো রোজগার করতে পারেন না। এর কারণ হতে পারে ঘরের ছোটখাটো কিছু বিষয়।


কথায় আছে মা লক্ষ্মী ভীষণ চঞ্চল। তাঁকে ঘরে বেঁধে রাখা খুব একটা সহজ কাজ নয়। কিন্তু যদি ঝাড়ুতে এই জিনিসটা বেঁধে নেওয়া যায়, তা হলে ভাগ্য ফিরতে পারে।


নিজের ভাগ্য ফেরাতে ঝাড়ুতে কী বাঁধবেন—


বাস্তুশাস্ত্র মতে ঝাড়ুর হাতলে সাদা সুতো বেঁধে নেওয়া অত্যন্ত শুভ ফল প্রদান করে। এর ফলে খুব তাড়াতাড়ি ভাগ্য ফেরানো সম্ভব। ঝাড়ু কিনে এনেই সাদা সুতো বেঁধে তারপর ব্যবহার করতে হবে।


কী কী বাড়ে ঝাড়ু কেনা উচিত—


ঝাড়ু শুধু মাত্র রবিবার, শনিবার ও মঙ্গলবারেই কেনা উচিত।


বাতিল ঝাড়ু কী বারে ফেলা উচিত—


শুধু মাত্র শনিবারেই বাতিল ঝাড়ু ফেলতে হয়। শুক্রবারে বাতিল ঝাড়ু ফেলা উচিত নয়।