রামনবমীর মাহাত্ম্যঃ দেখে নিন নির্ঘণ্ট ও সময়সূচি

রামনবমীর মাহাত্ম্যঃ  দেখে নিন নির্ঘণ্ট ও সময়সূচি

যখনই ধর্মের অধঃপতন এবং অধর্মের অভ্যুত্থান ঘটে, তখনই সাধুদের পরিত্রাণ এবং দুষ্কৃতীদের বিনাশের উদ্দেশ্যে ভগবান বিষ্ণু ধরাধামে বিভিন্ন অবতার রূপে অবতীর্ণ হয়েছেন।ত্রেতা যুগে অযোধ্যায় সূর্যবংশীয় রাজা দশরথ এবং রানি কৌশল্যার পুত্র রূপে চৈত্র শুক্ল নবমী তিথিতে ভগবান বিষ্ণুর সপ্তম অবতার রামচন্দ্র দুষ্টের বিনাশ এবং শিষ্টের পরিত্রাণের উদ্দেশ্যে ধরাধামে অবতীর্ণ হন।তাই চৈত্র শুক্ল নবমী তিথি হিন্দু ধর্মের পরম পবিত্র রামনবমী তিথি নামে পালিত হয়।

প্রতিটি হিন্দু বাড়ি বা মন্দিরে নানা উৎসব অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়েই পূজিত হন হিন্দুদের অন্যতম দেবতা রাম। পুজোর পূর্বে সকালে শুদ্ধভাবে ও শুদ্ধ মনে সর্যদেবকে প্রণাম করে তার আশীর্বাদ নিয়ে দিনের শুরু করা হয় বিশেষভাবে। ধর্মপ্রাণ ব্যক্তিরা সারাদিন ধরে করতে থাকনে বৈদিক মন্ত্র উচ্চারণ। ভক্তিমূলক গান বা নৃত্য পরিবেশন করে বা রাম কাহিনী পাঠ করে পালিত হয় রামের জন্মতিথি।এই বছর অর্থাৎ ২০২১ সালে এই বিশেষ দিনটি পড়েছে ২১ শে এপ্রিল অর্থাৎ বুধবার। ২১ শে এপ্রিল থেকে ২২ শে এপ্রিল অবধি চলবে সময় মেনে পুজো। মহামারীর দাপটে এবার উৎসব ও পুজো সম্পাদন করতে কিছুটা সমস্যা আসলেও উৎসব পালন থেকে বিমুখ হননি কেউ।

এই বছর সুস্থভাবে থাকতে কোনো মেলা বা অনুষ্ঠানে না গিয়ে সেইসব সামাজিক জমায়েত এড়িয়ে বাড়িতেই করুন পরিবারের সদস্যদের নিয়ে এই পুজো। এতেই সন্তুষ্ট হবেন শ্রী রাম। হয়তো এই পুজোর মাধ্যমেই ধরাধাম থেকে আমরা প্রার্থনা করতে পারি মহামারীকে বিদায় জানানোর। ৭ বৈশাখ, ২১ এপ্রিল, বুধবার পবিত্র রামনবমী।  রামনবমীর পূর্ণ তিথিতে তুলসী পাতা এবং পদ্মফুল সহযোগে রামচন্দ্রের উপাসনা এবং রামায়ণ পাঠ পরম শুভ ফলদায়ক।রামনবমীর পূণ্য প্রভাতে সূর্যদেবকে অর্ঘ্য প্রদান এবং সূর্যদেবের উপাসনা বিশেষ শুভ ফলদায়ক।

বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত পঞ্জিকা অনুসারে–

নবমী তিথি আরম্ভ–

বাংলা– ৬ বৈশাখ মঙ্গলবার।

ইংরেজি– ২০ এপ্রিল মঙ্গলবার।

সময়– রাত পৌনে ১টা।

নবমী তিথি শেষ–

বাংলা– ৭ বৈশাখ বুধবার।

ইংরেজি– ২১ এপ্রিল বুধবার।

সময়– রাত ১২টা ৩৬ মিনিট।

গুপ্তপ্রেস পঞ্জিকা অনুসারে-

নবমী তিথি আরম্ভ–

বাংলা– ৬ বৈশাখ মঙ্গলবার।

ইংরেজি– ২০ এপ্রিল মঙ্গলবার।

সময়– রাত ৭টা ১৬ মিনিট ৪৮ সেকেন্ড।

নবমী তিথি শেষ–

বাংলা– ৭ বৈশাখ বুধবার।

ইংরেজি– ২১ এপ্রিল বুধবার।

সময়– রাত ০৭টা ০৭ মিনিট ৩৪ সেকেন্ড।