'এক পয়সার নেতা', ফের বিস্ফোরক অনুব্রত মণ্ডল

'এক পয়সার নেতা', ফের বিস্ফোরক অনুব্রত মণ্ডল

আজ বাংলা: বিজেপি নেতা সৌমিত্র খাঁকে এক পয়সার নেতা বলে কটাক্ষ করলেন বিজেপির জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। প্রসঙ্গত, মল্লারপুর থানায় পুলিশি হেফাজতে এক কিশোরের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে বিজেপি ও তৃণমূলে সংঘর্ষ বাধে। 


বিজেপির তরফ থেকে দাবি করা হয়, মৃত কিশোর ও তার পরিবারের সদস্যরা বিজেপি করে যদিও পরে মৃত কিশোরের পরিবারের তরফ থেকে জানানো হয়, তারা তৃণমূলের সমর্থক। এমনকি এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে আজ মল্লারপুরে ১২ ঘণ্টার ধর্মঘট অবধি ডাকা হয়।

 


সেই ধর্মঘটে সামিল হতে এবং থানা ঘেরাও কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করতে মল্লারপুরে পৌঁছান বিজেপির যুব মোর্চার সভাপতি সৌমিত্র খাঁ। 


এদিন তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও বীরভূমের জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে একাধিকবার আক্রমণ করেন। এদিন সৌমিত্র খাঁ এর নাম না করেই অনুব্রত মণ্ডল বলেন, ‘নোংরামি হচ্ছে। ওই এক পয়সা, দুই পয়সা, তিন পয়সার নেতা এলে যা হয়। ওর দাম হলো ১ নয়া, ২ নয়া, ৩ নয়া। নাম বললে শরীর খারাপ হবে। নামটা বললেই বমি আসে।’

মল্লারপুর থানার বাউরি পাড়ার তিনটি ছেলেকে মোবাইল চুরির অভিযোগে গত বুধবার রাত্রে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তারপর থেকে আদালতে না পাঠিয়ে থানার মধ্যে রেখেই মারধর করে পুলিশ বলে অভিযোগ। 

শুক্রবার সকালে শুভ মেহনার  মৃত্যু সংবাদ দেয় পুলিশ। পুলিশের দাবি, বৃহস্পতিবার রাত্রে থানার বাথরুমে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্বহত্যা করেছে ছেলেটি। রাতেই মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতালেও পাঠিয়ে দেয় পুলিশ। শুক্রবার সকালে খবর পাওয়ার পর ক্ষোভে ফেটে পড়ে পরিবারের লোকজন।