উৎসবের মুখে বড় রেল দুর্ঘটনার সাক্ষী থাকল দেশ, লাইনচ্যুত হল ট্রেন

উৎসবের মুখে বড় রেল দুর্ঘটনার সাক্ষী থাকল দেশ, লাইনচ্যুত হল ট্রেন

আজ বাংলা: উৎসবের মুখে বড়সড় রেল দুর্ঘটনা ঘটল। মঙ্গলবার বিহারে (Bihar) এক বড়সড় রেল দুর্ঘটনা ঘটে গেল। মুজফরপুরের পাশে পূর্বাঞ্চল এক্সপ্রেসের (Purvanchal Express) দুটি কামরা লাইনচ্যুত হয়ে যায়। 

তবে ঘটনায় কোনও হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। রেলওয়ে (Indian Railways) দুর্ঘটনার পর হেল্প লাইন নম্বর জারি করেছে। এর সঙ্গে জানিয়েছে যে, খুব শীঘ্রই ওই সেকশনে রেল যাতায়াত সামান্য হয়ে যাবে। আপাতর কামরা গুলোকে লাইনে বসানর কাজ চলছে।

অন্যদিকে, গতকাল পুরীর (Puri) কাছাকাছি রাস্তায় লাইন চ্যুত হয়ে যায় ট্রেনের দুটি ইঞ্জিন। তবে ট্রেনটি সম্পূর্ণই খালি ছিল। জানা গিয়েছে, ওই ইঞ্জিন দুটি ক্ষতিগ্রস্থ রেলের কামড়া নিয়ে যাচ্ছিল। তবে আচমকাই লাইন থেকে চাকা সরে যাওয়ার এই দুর্ঘটনা ঘটে যায়।


এরপর সোমবার রাত সাড়ে ৮ টা নাগাদ ঘটে এই ঘটনা। খরদা জংশন থেকে পুরী স্টেশনের দিকে যাওয়ার সময় পুরীর কাছাকাছি চন্দনপুর ও তুলসিছৌরার মাঝে এই ঘটনাটি ঘটে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে রেল কর্তৃপক্ষের (Indian Railways) প্রযুক্তি বিভাগের দল পৌঁছায়। ঠিক কি কারণে এই ঘটনা ঘটল তা তদন্ত করা হচ্ছে।

সূত্রের খবর, দুই ইঞ্জিন বাহী ট্রেনটির সামনের ইঞ্জিনের ৩ টি চাকা এবং পেছনের ইঞ্জিনের ১ টি চাকা লাইন চ্যুত হয়ে লাইন থেকে বেরিয়ে যায়। তার জেরেই ঘটে যায় এই বিপত্তি। তবে এই ঘটনায় এখনও অবধি কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়। রেল কর্তৃপক্ষ সেখানে পৌঁছানোর পর ইঞ্জিন দুটিকে লাইনে তোলা হয়।

উল্লেখ্য, আবার উৎসবের মরশুমে পুজোর আগেই দীঘা পুরীর ট্রেন চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রেল কর্তৃপক্ষ।  ১৫  অক্টোবর থেকে চালু হয়েছে রাঁচি শতাব্দী এক্সপ্রেস। ১৬ ই অক্টোবর থেকে চালু হয়েছে দীঘা পুরী গামী ট্রেন এবং স্পেশ্যাল স্টিল এক্সপ্রেসও। 


১৭ ই অক্টোবর থেকে প্রতি শনিবার হাওড়া থেকে চালু হয়েছে হাওড়া-এরণাকুলাম ভায়া কাঠপাতি এক্সপ্রেস।