তৃণমূলে 'ঘর ওয়াপসি', কালীঘাটে মমতা-সাক্ষাৎ সেরে তৃণমূল ভবন মুকুল রায়

তৃণমূলে 'ঘর ওয়াপসি',  কালীঘাটে মমতা-সাক্ষাৎ সেরে তৃণমূল ভবন মুকুল রায়

জল্পনা ঘোরাফেরা করছিলই। কয়েক বছর গেরুয়া শিবিরে কাটিয়ে, দলে বড় পদ পাওয়ার পর আর মন টিকছে না সেভাবে। রাজনৈতিক মহলের একাংশের তাই ধারণা হয়েছিল, ফের ঘাসফুলের পথে পা বাড়াবেন বলে জমি তৈরি করছিলেন মুকুল রায় (Mukul Roy)। শুক্রবারই কি তা বাস্তবায়িত হতে চলেছে? সপুত্র মুকুল রায় আজই যোগ দেবেন তৃণমূলে? এমনই জল্পনা উসকে উঠেছে। আজ বিকেল ৩টেয় তৃণমূল ভবনে সাংগঠনিক বৈঠক ডেকেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

সূত্রের খবর, তার আগে কালীঘাটের বাড়িতে মমতার সঙ্গে দেখা করবেন মুকুল রায়। তারপর তৃণমূল ভবনে আসতে পারেন মুকুল, শুভ্রাংশু। আনুষ্ঠানিক যোগদান এখানে হতেই পারে। নাহলে তৃণমূলে প্রবেশের পথ পরিষ্কারই রইল। সদস্যপদ নিতে যতক্ষণ। ভোটের আগে দলত্যাগীদের নির্বাচন পরবর্তী পরিস্থিতিতে দলে ফেরানো নিয়ে তৃণমূল (TMC) সুপ্রিমোর অবস্থান ছিল বেশ নরম। বিপুল ভোটে রাজ্যে তৃতীয়বার ক্ষমতা দখলের পর তিনি জানিয়েছিলেন, 'দলত্যাগীরা ফিরতে চাইলে ওয়েলকাম, অসুবিধা কী আছে?' আর ভোটের আগে শুভেন্দুকে বিঁধতে গিয়ে একদা দীর্ঘদিনের বিশ্বস্ত সঙ্গীর প্রতিও নরম মনোভাব প্রকাশ করেছিলেন নেত্রী।

সেই বার্তা পেয়ে অনেকেই ফিরব-ফিরব করছিলেন। সম্প্রতি মুকুল রায় নিয়েও তেমনই জল্পনা তৈরি হয়। তা আরও বাড়ে গত সপ্তাহে মুকুল রায়ের অসুস্থ স্ত্রীকে অভিষেকের হাসপাতালে দেখতে যাওয়ার পর। সেখানে তিনি মুকুলপুত্র শুভ্রাংশুকে (Subhrangsu Roy) আশ্বস্ত করেন, 'পাশে আছি' বলে। তারপর থেকে পিতাপুত্রের তৃণমূলে ফেরা নিয়ে গুঞ্জন আরও জোরদার হয়। রাজনীতির বাইরে গিয়ে অভিষেকের এই সৌজন্যে আপ্লুত হয়ে পড়েছিলেন শুভ্রাংশু। বরফ গলনের পরিস্থিতি তৈরিই হচ্ছিল। তবে কি শুক্রবার বিকেলই সেই মাহেন্দ্রক্ষণ?

তৃণমূল ভবনে দলনেত্রীর সঙ্গে দেখা করতে এসেই কি পুরনো ঘরে ফিরবেন তাঁরা ? উত্তর এখনও কিছুটা সময়ের অপেক্ষায়। এদিন তাঁদের সঙ্গে তৃণমূলে যোগ দিতে পারেন প্রণবপুত্র অভিজিত্‍ মুখোপাধ্যায়ও। তিনি এই মুহূর্তে জঙ্গিপুরের কংগ্রেস সাংসদ। দিন কয়েক আগে তিনিও রাজ্যের শাসকদলে যোগদানের ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন বলে খবর। এবার শুক্রবারই কি আনুষ্ঠানিক যোগদান? রাজনৈতিক মহলের একটা বড় অংশের মত, আজই মুকুল রায়, শুভ্রাংশু রায়, অভিজিত্‍ মুখোপাধ্য়ায় - তিনজনকে দলে স্বাগত জানাবেন তৃণমূল সুপ্রিমো।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতিই তৃণমূলের সাংগঠনিক রদবদলে সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদকের পদ পেয়েছেন অভিষেক বন্দ্য়োপাধ্যায়। তৃণমূলে থাকতে এই পদের দায়িত্বে ছিলেন মুকুল রায়। তিনি দল ছেড়ে যাওয়ার পর সেভাবে আর কাউকে এই পদে বসাননি তৃণমূল সুপ্রিমো। এতদিন পর ফের মুকুলের ছেড়ে যাওয়া দায়িত্বভার অভিষেকের কাঁধে তুলে দেওয়া হয়েছে। এরপর মুকুলেরও ঘাসফুল শিবিরে আগমন সময়ের অপেক্ষা মাত্র। ফলে এবার দলে তাঁকে কোন দায়িত্ব দেওয়া হবে, তা নিয়েও শুরু হয়েছে জল্পনা।