তৃণমূল সাংসদ মিমি চক্রবর্তীর এই নাচের ভিডিয়ো উস্কে দিল রাজনৈতিক জল্পনা

তৃণমূল সাংসদ মিমি চক্রবর্তীর এই নাচের ভিডিয়ো উস্কে দিল রাজনৈতিক জল্পনা

মিঠে রোদ গায়ে মেখে গোয়ায় ছুটি কাটাচ্ছেন টলিউডের দুই সুন্দরী অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী এবং পার্নো মিত্র। ১২ ফেব্রুয়ারি ছিল মিমির জন্মদিন। তারপরেই গোয়ায় উড়ে যান তিনি। যদিও প্রথম অবস্থায় মিমির ইনস্টাগ্রাম স্টোরি এবং তাঁর পোস্ট করার একের পর এক 'সুপার হট' ছবি দেখে বেশ ধোঁয়াশায় ছিলেন তাঁর ফ্যানরা।

কখনও হট প্যান্টে দেখা গিয়েছে তাঁকে, কখনও আবার কালো লেসের হাই থাই শ্লিট পোশাকে মোহময়ী হয়ে উঠেছেন। তবে শেষ দু-একদিনে মিমিকে সোশ্যাল মিডিয়ায় নানা মুডে উষ্ণতা ছড়াতে দেখা গেলেও, তিনি কার সঙ্গে বা কোথায় গিয়েছেন তিনি, তার কোনও আভাস ছিল না।

বৃহস্পতিবর নেটমাধ্যমে একটি ভিডিয়ো শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী। সেখান থেকেই জানা গেল, বিজেপি সদস্য পার্নোর গোয়া ভ্রমণে সঙ্গী হয়েছেন তৃণমূল সাংসদ মিমি চক্রবর্তী। পার্নো-মিমির এই আকস্মিক বন্ধুতায় রাজনৈতিক বোঝাপড়ার গন্ধ পাচ্ছেন অনেকেই। এক ঝাঁক টলিউড তারকা বিজেপি-র পতাকা হাতে তুলে নেন বুধবার বিকেলে। যশ দাশগুপ্তের নাম সেই তালিকায় উজ্জ্বল।

যশের যোগদানের পর থেকেই তাঁর দুই ‘বন্ধু’ নুসরত এবং মিমির দলবদলের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে টলিপাড়ায়। তারই মধ্যে এই ভিডিয়ো আরও উত্তেজনা ছড়াল। টলিপাড়ার একাংশ মনে করছে, পার্নোর সাহায্যে দলবদলের সময়ে পদ্মবনে প্রবেশ করতে চাইছেন মিমি। সেই জন্যই নাকি হঠাৎ তাঁর সঙ্গে গোয়ায় উড়ে যাওয়া। আবার অনেকে বলছেন, গেরুয়া শিবির ছেড়ে সবুজের দিকে ঝুঁকছেন পার্নো।

মিমির সঙ্গে তাই বাড়ছে তাঁর ঘনিষ্ঠতা। কারণ, বেশ কিছু দিন ধরে বিজেপি-তে সক্রিয় ভূমিকা পালন করতে দেখা যায়নি পার্নোকে। এমনকি, দলের মিটিং-মিছিলেও সে ভাবে দেখা মিলেনি তাঁর। ভিডিয়োয় দেখা যাচ্ছে, যশরাজ মুখাটের একটি ভাইরাল গানের সঙ্গে নাচ করছেন পার্নো এবং মিমি। সঙ্গে রয়েছেন টলিউডের রূপটান শিল্পী সন্দীপ ঘোষাল এবং আরও এক বান্ধবী। সম্ভবত যে রিসর্টে তাঁরা উঠেছেন, সেখানেই শ্যুট করা হয়েছে এই ভিডিয়ো।

 ২০১৯ সালে নয়াদিল্লি গিয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগদান করেছিলেন পার্নো। আবার সেই বছর তৃণমূলের হয়ে লোকসভা নির্বাচনে দাঁড়িয়ে জয়ী হয়ে যাদবপুর কেন্দ্রের সংসদের পদ পেয়েছিলেন মিমি।

দুই শিবিরের দুই অভিনেত্রীকে বিভিন্ন সময়ে একসঙ্গে দেখা গেলেও, এ ভাবে ছুটি কাটাতে যাওয়ার মতো ঘনিষ্ঠতার কথা জানা ছিল না কারও। তা হলে কি এত দিন নিজেদের বন্ধুত্ব আড়ালে রেখেছিলেন টলিপাড়ার দুই নায়িকা? নাকি নতুন কোনও রাজনৈতিক হিসেব-নিকেশের পালা হল শুরু?

View this post on Instagram

A post shared by Queen P (@parnomittra)