আচমকাই উলটপূরাণ! পোস্ট ডিলিট করলো তৃণমূল নেতা দেবাংশু ভট্টাচার্য

আচমকাই উলটপূরাণ! পোস্ট ডিলিট করলো তৃণমূল নেতা দেবাংশু ভট্টাচার্য

আচমকাই উলটপূরাণ! এবার দলের বিরুদ্ধে একরাশ ক্ষোভ উগরে দিতে দেখা গেল Debangshu Bhattacharya দেবাংশু ভট্টাচার্যকে। আগামীকাল অর্থাৎ ২ মে তৃণমূল সরকারের তৃতীয়বার সরকার গঠনের বর্ষপূর্তি। আর ঠিক তার আগেই পুরনো তৃণমূল এবং নব্য তৃণমূল বিতর্ক উসকে দিলেন এই যুবনেতা। রবিবার নিজের ফেসবুক ওয়ালে বিস্ফোরক মন্তব্য করতে দেখা গেল Debangshu Bhattacharya  দেবাংশু ভট্টাচার্যকে।

যেখানে তিনি লিখেছেন, ''গতবছর ঠিক আজকের দিন পর্যন্ত রাজ্যে যে তৃণমূলটা ছিল, সেটাই নিষ্কলুষ, ধান্দাবাজবিহীন, অকৃত্তিম, প্রকৃত তৃণমূল। তারপর তো বন্যা এল! গঙ্গা জল, ড্রেনের জল সব মিলেমিশে একাকার!'' এরসঙ্গেই আবার দেবাংশুর সংযোজন, ''তবুও দলে একটা স্ট্রং ফিল্টার আছে বলেই বিশ্বাস। তারা পেছনের সারিতেই থাকবেন, সেটাও বিশ্বাস করেন দলের কর্মীরা।''

এই পোস্ট করার ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই অবশ্য সেটি ডিলিট করে দেন তৃণমূল নেতা। তবে তিনি যে আদতে দলবদলকারীদের দিকেই ইঙ্গিত করেছেন, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।  রবিবার সকালের ফেসবুক পোস্ট ডিলিট করে পরে আরও একটি পোস্ট করেন তিনি। সেখানে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করে দেবাংশু ভট্টাচার্য লেখেন, ''শেষ পোস্টের অর্থ হয়ত ঠিকঠাক বোঝাতে পারিনি। অকারণ বিতর্ক হচ্ছে।

তাই পোস্ট ডিলিট করলাম।'' তাঁর আরও বক্তব্য, ''কর্মীরাই দলের সম্পদ। সবাইকে নিয়ে চলতে হবে। তৃণমূল কংগ্রেস শৃঙ্খলাবদ্ধ দল। দলের সিদ্ধান্তের উপর ভরসা রাখতে হবে। এই দলে কর্মীদের স্বার্থ সবার আগে দেখা হয়। কারণ, এই দলের নেত্রীর নাম মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।'' গোটা বিষয়টি নিয়ে যুব নেতার সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে, তাঁকে ফোনে পাওয়া যায়নি।