তৃণমূল বিধায়ক রাজ চক্রবর্তীকে ঘিরে তৃণমূলের বিক্ষোভ

তৃণমূল বিধায়ক রাজ চক্রবর্তীকে ঘিরে তৃণমূলের বিক্ষোভ

ব্যারাকপুরের তৃণমূল বিধায়ক রাজ চক্রবর্তীকে ঘিরে ফের অশান্তি। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজ খড়দহের গাঁধী মোড়ের কাছে একটি পার্কের উদ্বোধন গেলে তাঁকে ঘিরে বিক্ষোভ হয়। তবে ঘটনাস্থলে মোতায়েন পুলিশ বাহিনী সক্রিয়তা দেখানোয় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে যায়নি। তবে ধাক্কাধাক্কিতে রাজের নিরাপত্তারক্ষী আহত হন বলেন অভিযোগ।

স্থানীয় সূত্রের খবর, কয়েক দিন আগে গাঁধী মোড়ে তোলাবাজির প্রতিবাদ করায় স্থানীয় এক তৃণমূল কর্মীকে মারধর করে দুষ্কৃতীরা। সেই ঘটনার প্রতিবাদেই এই বিক্ষোভ। পুলিশ দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না বলেও অভিযোগ তোলেন বিক্ষোভকারীরা। ঘটনার খবর শুনে ব্যারাকপুরের পুলিশ কমিশনার মনোজ বর্মা বিশাল পুলিশ বাহিনী পৌঁছন।

স্থানীয় বিধায়ক সুবোধ অধিকারী, নৈহাটির বিধায়ক পার্থ ভৌমিক, কামারহাটির বিধায়ক মদন মিত্রও সেখানে চলে আসেন।  টিটাগড়ের বড়ো মসজিদের কাছে রাজ একটি দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিয়ে বেরনোর সময়ই অশান্তির সূত্রপাত বলে স্থানীয় সূত্রের খবর।

ব্যারাকপুরের বিধায়ক তথা চলচ্চিত্র পরিচালক রাজ পরে বলেন, ‘‘টিটাগড়ে দুর্বৃত্তায়ন বন্ধ করবই। আমি পাঁচ বছর থাকবই। কেউ সরাতে পারবে না। তার আগেই দুর্বৃত্তায়ন বন্ধ করে দেব।’’ প্রসঙ্গত, গত অগস্টে ব্যারাকপুরে একটি হনুমান মন্দির সংক্রান্ত সমস্যার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে রাজের উপর হামলা হয় বলে অভিযোগ। ওই ঘটনায় রাজের কয়েক জন সঙ্গী আহতও হয়েছিলেন।