চীনের কাছে ১০ ট্রিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ দাবি ট্রাম্পের

চীনের কাছে  ১০ ট্রিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ দাবি ট্রাম্পের

করোনাভাইরাস ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের চীনকে দোষারোপ নতুন নয়। এবার ক্ষতিপূরণ বাবদ চীনের কাছ থেকে ১০ ট্রিলিয়ন ডলার দাবি করেছেন তিনি।  ২০১৯ সালের শেষ দিকে এসে চীনের উহান থেকে বিশ্বময় ছড়িয়ে পড়ে করোনাভাইরাস। এর পর তা রূপ নেয় মহামারিতে। শুরু থেকেই এ ভাইরাসে নাকাল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

তখন দেশটির প্রেসিডেন্ট ছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেই সময় তিনি এ ভাইরাসকে ‘চীনা ভাইরাস’ হিসেবেই অভিহিত করতেন। এখনও তিনি তার অবস্থান থেকে সরেননি, সে কথা জানিয়ে দিলেন বিবৃতির মাধ্যমে। শুক্রবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, চীন উহানের ল্যাব থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে দিয়েছে। ট্রাম্প বলেন, এমনকি আমার ‘শত্রু’ জো বাইডেন পর্যন্ত আমার মতো করোনার জন্য চীনকে দায়ী করছেন।

ট্রাম্প ২০২০ সালের মার্চে করোনাভাইরাস চীনের উহানের ল্যাব থেকে ছড়িয়ে গেছে বলে অভিযোগ করেন। বৈশ্বিক স্বাস্থ্যব্যবস্থায় সংকট তৈরি করা এ ভাইরাসকে তিনি অভিহিত করেছেন ‘চীনা ভাইরাস’ হিসেবে। এ ভাইরাসের কারণে যে পরিমাণ মৃত্যু ও ক্ষতি হয়েছে তা পুষিয়ে নিতে ট্রাম্প চীনের কাছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং বিশ্বের জন্য ১০ ট্রিলিয়ন ডলার দাবি করেন।

ট্রাম্প বলেন, এখন সবাই— এমনকি আমার ‘শত্রু’ও বলতে শুরু করেছেন যে, চীনের উহানের ল্যাব থেকে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে যাওয়ার বিষয়ে আমি যা বলেছি তা ঠিক ছিল। এ ভাইরাসের কারণে যে পরিমাণ মৃত্যু এবং ক্ষতি হয়েছে তার জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও বিশ্বকে ১০ ট্রিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ হিসেবে দিতে হবে চীনের। করোনায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে। দেশটিতে মারা গেছে ছয় লাখ ১১ হাজার ৬১১ জন। বিশ্বে শুক্রবার পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৩৭ লাখ ১৭ হাজার ৩২০ জনের।