প্রচুর পরিমাণ অস্ত্র সহ এসটিএফের জালে ধরা পড়ল ২ অস্ত্র কারবারি

প্রচুর পরিমাণ অস্ত্র সহ এসটিএফের  জালে ধরা পড়ল ২ অস্ত্র কারবারি

রাজ্য পুলিশের এসটিএফের (STF) জালে ধরা পড়ল ২ অস্ত্র (Arms) কারবারি। বুধবার গভীর রাতে বেলঘরিয়া এক্সপ্রেসওয়ে (Belgharia Expressway) থেকে অস্ত্র আদানপ্রদানের সময় হাতেনাতে তাদের পাকড়াও করেন এসটিএফ সদস্যরা। এদের কাছ থেকে প্রচুর পরিমাণ অস্ত্র এবং নগদ টাকা উদ্ধার হয়েছে বলে এসটিএফ সূত্রে খবর। ধৃতদের মধ্যে একজন বিহারের (Bihar) বাসিন্দা। অপরজন দক্ষিণ ২৪ পরগনার। আজ তাদের আদালতে পেশ করে নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার আবেদন জানাতে চলেছেন গোয়েন্দারা।

এই অস্ত্র কারবারের নেপথ্যে আরও বড় কোনও চক্র রয়েছে বলেই অনুমান তাঁদের। দু'জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে তার কিনারা করতে চায় এসটিএফ। ধৃতদের থেকে উদ্ধার গুলি, নগদ টাকা সূত্রের খবর, বুধবার রাতে বেলঘরিয়া এক্সপ্রেওয়ের শুনশান জায়গায় 'ডিল' করছিল সিকান্দার ও রফিক। রাজ্য পুলিশের স্পেশ্যাল টাস্ক ফোর্সের কাছে এ বিষয়ে আগে থেকেই গোপন সূত্রে খবর ছিল। সেইমতো এসটিএফের একটি দল সেখানে হানা দেয়।

হাতেনাতে ধরে ফেলে সিকান্দার, রফিককে। তাদের কাছ থেকে ৫০ রাউন্ড গুলি, ৪৯ হাজার নগদ টাকা বাজেয়াপ্ত করা হয়। জানা গিয়েছে, সিকান্দার বিহারের ভাগলপুরের বাসিন্দা। আর অপরজন, রফিকের বাড়ি দক্ষিণ ২৪ পরগনার (South 24 Parganas) উস্তিতে। জানা গিয়েছে, সিকান্দারের থেকে বহুদিন ধরেই অস্ত্র কেনাবেচা করছে রফিক। একেকটি কর্তুজ হাজার টাকায় বিক্রি করত সিকান্দার। তাই রফিককে ৫০ রাউন্ড গুলির জন্য প্রায় ৫০ হাজার টাকার 'ডিল' হয়েছিল।

সিকান্দার প্রায় ১২ বছর ধরে বিহার থেকে অস্ত্র এনে কলকাতায় (Kolkata) বিক্রির কাজে জড়িত। এসব অস্ত্র 'মুঙ্গের মেড' কি না, তা খতিয়ে দেখছেন গোয়েন্দারা। এর পিছনে আরও বড় কোনও চক্র রয়েছে কি না, তা খুঁজে বের করতে মরিয়া এসটিএফ। ধৃত ২ জনের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করে শুরু হয়েছে তদন্ত।