ঘরের দেওয়ালে সঠিক রঙের পর্দা ব্যবহার করলে দূর হবে নেগেটিভ শক্তি

ঘরের দেওয়ালে সঠিক রঙের পর্দা ব্যবহার করলে দূর হবে নেগেটিভ শক্তি

 ঘরের ভেতরের সাজসজ্জা তখনই ভাল ভাবে ফুটে ওঠে, যখন ঘরের দেওয়ালের সঙ্গে পর্দার রং ম্যাচ করে লাগানো হয়। দেওয়ালের রঙের সঙ্গে পর্দার রং রুচি অনুযায়ী টাঙালে তবেই সৌন্দর্য খোলে। বাস্তুশাস্ত্র মতে প্রত্যেকটা ঘরের রং যেমন আলাদা হওয়ার প্রয়োজন আছে, ঠিক তেমনই পর্দার রংও বাস্তু মেনে হওয়া উচিত।

যেমন বেডরুমের রং, রান্নাঘরের রং, ঠাকুর ঘরের রং, ড্রয়িং রুমের রং, বাথরুমের রং— সব ঘরে আলাদা রং ব্যবহার করা উচিত। ঘরের দরজা ও জানলায় পর্দা ব্যবহার শুধু সৌন্দর্য বাড়ায় না, পর্দা ব্যবহার করা হয় যাতে বাইরের কোনও অশুভ শক্তি ঘরের ভেতর প্রবেশ করতে না পারে।

তাই সঠিক রঙের পর্দা ব্যবহারের ফলে নেগেটিভ শক্তি ঘরের ভিতর প্রবেশে বাধা পায় এবং ঘর পজিটিভ এনার্জিতে ভরে থাকে। দেখে নেওয়া যাক কোন ঘরের দেওয়ালে কেমন রঙের পর্দা টাঙানো উচিত—

• বাস্তুমতে ঘরের দেওয়ালে দু’টি স্তরের পর্দার ব্যবহার খুব শুভ বলে মানা হয়।

 • ঘর যদি পূর্বমুখী হয়, তা হলে ঘরের দেওয়ালে সবুজ রঙের পর্দা ব্যবহার করতে হবে।

• পশ্চিমমুখী ঘর হলে পর্দার রং হবে সাদা। • উত্তরমুখী ঘরে নীল রঙের পর্দা ব্যবহার করতে হবে।

• দক্ষিণমুখী ঘরের পর্দার রং হবে লাল।

• তবে শোবার ঘরের দেওয়ালের পর্দার রং সব সময় হালকা রাখতে হবে। এতে স্বামী-স্ত্রী সম্পর্ক আরও মধুর হয়ে উঠবে। যেমন হালকা গোলাপী, নীল, সাদা ইত্যাদি এই ধরনের রং ব্যবহার করতে হবে।

• ড্রয়িং রুমে বাদামি, ক্রিম রঙ ব্যবহার করুন।

• রান্নাঘরে লাল, কমলা রঙের পর্দা ব্যবহার করা যেতে পারে।

• বাথরুমে সাদা বা আকাশী নীল ব্যবহার করতে পারেন।