সকাল থেকে আকাশের মুখ ভার, বজ্রবিদ্যুৎ সহ প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনা

সকাল থেকে আকাশের মুখ ভার, বজ্রবিদ্যুৎ সহ প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনা

আজ বাংলা: সকাল থেকেই আকাশের মুখ ভার। মেঘের গর্জনও শোনা গিয়েছে খানিক। আবহাওয়া অফিসের পূর্বাভাস অনুযায়ী, রবিবার অনেক জেলায় ব্যাপক বৃষ্টি হতে পারে।

আবহাওয়া অধিদফতরের পূর্বাভাস, রাজ্যে বর্ষা এখনও ছাড়েনি। আবহাওয়া অধিদফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, আজ রাজ্যের দক্ষিণাঞ্চলের কয়েকটি জেলায় আবহাওয়ার পরিবর্তন হতে পারে।

হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, রাজ্যে জুড়ে বৃষ্টির ২৩ শে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলতে পারে।রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় ২৩ শে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত হলুদ সতর্কতা জারি করেছে। এর মধ্যে দক্ষিণ পূর্ব রাজস্থানের জেলাগুলি অন্তর্ভুক্ত। এবার রাজ্য থেকে বর্ষার বিদায় বিলম্বিত হয়েছে।

এই মুহূর্তে, আবহাওয়ার যা পরিস্থিতি তাতে, অবিচ্ছিন্ন বৃষ্টিপাতের সময়সীমা অব্যাহত রয়েছে। এই পরিস্থিতির কারণে, এই মাসের শেষে রাজ্য থেকে বর্ষা সরতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

আবহাওয়া দফতর ৭টি জেলার জন্য হলুদ সতর্কতা জারি করেছে। বাঁশওয়ারা, চিতোর, ডুঙ্গারপুর, রাজসমন্দ, প্রতাপগড়, সিরোহি ও উদয়পুর জেলায় বৃষ্টিপাত হতে পারে।

এর আগে বৃহস্পতিবার, জানা গিয়েছিল যে, বৃষ্টিপাতের হার দুর্বল হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে রাজ্যে ফের একবার শুরু হয়েছে তাপপ্রবাহ।

বুধবার চুরু রাজ্যের উষ্ণতম অঞ্চল ছিল। চুরুতে পারদ ৪১ ডিগ্রি পৌঁছয়। একই সময়ে, পিলানী এবং শ্রীগঙ্গানগর ৩৯ এবং জয়সলমির ও বিকানারে প্রায় ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা ছিল। রাজ্যের অন্যান্য অঞ্চলেও ছিল তীব্র তাপ৷তবে এখন বর্ষা পুরো মেজাজে থাকবে বলে মনে করা হচ্ছে৷


যদিও বিদায় কালে বর্ষা খুব বেশি প্রভাব ফেলতে পারেনি৷ বঙ্গোপসাগরে তৈরি নিম্নচাপও দেশের এই অঞ্চলটিতে খুব বেশি ভেজাতে পারেনি। আবহাওয়া দফতরের অনুমান ছিল যে, এই নিম্নচাপে রাজস্থানের কিছু জায়গায় বৃষ্টি হতে পারে, তবে তা হয়নি। আবহাওয়া দফতরের মতে, বর্ষা এখন পুরোপুরি বিদায় নিতে চলেছে।