শুভেন্দু সহ পাঁচ বিধায়কের সাসপেনশন প্রত্যাহার

শুভেন্দু সহ পাঁচ বিধায়কের সাসপেনশন প্রত্যাহার

অবশেষে বিধানসভায় পাঁচ বিজেপি বিধায়কের সাসপেনশন প্রত্যাহার। শাসকদল তৃণমূল বিধায়কদের ধ্বনিভোটে শুভেন্দু সহ পাঁচ বিধায়কের উপর থেকে সাসপেনশন তুলে নেওয়া হল। এদিন থেকেই বিধানসভার বাদল অধিবেশনে যোগ দিতে পারবেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari), চিফ হুইপ মনোজ টিগ্গা, শঙ্কর ঘোষ, দীপক বর্মন, নরহরি মাহাত-সহ পাঁচজন।

তবে প্রথমে সাসপেন্ড হওয়া দুই বিধায়ক মিহির অধিকারী এবং সুদীপ মুখোপাধ্যায়ের (Sudip Mukherjee) সাসপেনশন এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে প্রত্যাহার করা হয়নি।  গত অধিবেশনে বিধানসভা কক্ষে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করার অভিযোগে সাসপেন্ড করা হয় বিরোধী শিবিরের বিধায়কদের।

এর আগে বিজেপি বিধায়কেরা সাসপেনশন তোলার জন্য আবেদন করলেও আবেদনপত্রে পদ্ধতিগত ক্রুটি থাকার জন্য তা গ্রহণ করেনি স্পিকার। বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় তাদের নতুন করে আবেদন করার কথা বলেন। গতকাল অর্থাৎ বুধবার পর্যন্ত সাসপেনশন তোলার দাবিতে বিধানসভার বাইরে ধরনায় বসেছিলেন বিজেপি বিধায়করা।

এই নিয়ে হাইকোর্টেও আপীল করেন বিধায়কেরা। তবে কলকাতা হাইকোর্ট জানায়, বিধানসভার বিধি মেনেই ওই সাসপেনশন প্রত্যাহার করতে হবে। তাই তারা যেন ওখানেই আবেদন করেন। এদিন বিধানসভা অধিবেশনের শুরুতেই সাসপেনশন তোলার প্রস্তাবে ধ্বনিভোটে সম্মতি জানান।

যদিও আদালতে যাওয়ার বিষয়টি নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রসঙ্গত, গত ১০ জুন থেকে শুরু হয়েছে বিধানসভার বাদল অধিবেশন। চলবে ১৭ জুন অবধি। শেষ দুদিনের অধিবেশনে যোগ দিতে পারবেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী, চিফ হুইপ মনোজ টিগ্গা, শঙ্কর ঘোষ, দীপক বর্মন, নরহরি মাহাত-সহ পাঁচজন।