পুলওয়ামায় শহীদ সৈনিকের পরিবারের প্রতি বড় ঘোষণা যোগী সরকারের

পুলওয়ামায় শহীদ সৈনিকের পরিবারের প্রতি বড় ঘোষণা যোগী সরকারের

আজ বাংলা         গতকাল জম্মু ও কাশ্মীরের পুলওয়ামা  ঘটনায়  প্রাণ হারানো শহীদ সিপাহী প্রশান্ত শর্মার আত্মীয়কে রবিবার উত্তরপ্রদেশ সরকার ৫০ লক্ষ টাকা  ক্ষতিপূরণ দিয়েছে। উত্তরপ্রদেশের আখমন্ত্রী সুরেশ রানা ঘোষণা করেছিলেন যে আর্থিক ক্ষতিপূরণ বাদে শহীদ সিপাহীর এক পরিবারের সদস্যকে সরকারী চাকরী দেওয়া হবে এবং এই  ২৩ বছর বয়সের সাহসীর নামে একটি ক্রসিং রোডের নামকরণ করা হবে।

 "উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী তহবিল থেকে শহীদ পরিবারকে ৫০ লক্ষ টাকা দেওয়া হয়েছে। তার নামে একটি রাস্তা ও ক্রসিংয়ের নামকরণ করা হবে এবং তার পরিবারের এক সদস্যকে সরকারি চাকরি দেওয়া হবে," উত্তরপ্রদেশের আখমন্ত্রী সুরেশ রানা ঘোষণা করেছিলেন। ২৯ আগস্ট দক্ষিণ কাশ্মীরের যাদুরা গ্রামে সুরক্ষা বাহিনী দ্বারা চালিত তল্লাশি অভিযানে সন্ত্রাসীদের সাথে বন্দুকযুদ্ধে সিপাহী প্রশান্ত শর্মা নিহত হয়েছেন। সন্ত্রাসীরা সেনাবাহিনীর যৌথ অনুসন্ধান দলের উপর গুলি চালানোর পরে শর্মার প্রাণ হারান। তিনি বুকে একাধিক গুলিবিদ্ধ আঘাত পেয়েছিলেন এবং পরে তাকে শ্রীনগরের ৯২ বেস হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ২৩ বছর বয়সী এই বীর প্রাণ চূড়ান্তভাবে তার চোটে মারা যান।

 “রবিবার সিপাহী প্রশান্ত শর্মার মৃতপ্রায় অবশেষকে শেষ আচারের জন্য মুজফফরনগরে তার নিজ শহরে আনা হয়েছিল। এই বীর প্রাণের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে বিশাল জনসমাগম হয়েছিল। শনিবার বিবি ক্যান্টনমেন্টে এক উত্সব অনুষ্ঠানে সিপাহী প্রশান্ত শর্মাকে শ্রদ্ধা জানালেন ভারতীয় সেনাবাহিনীর সম স্তরের।“ শর্মা যখন মাত্র ১৯ বছর বয়সেছিলেন, ২১ নভেম্বর, ২০১৬-এ সেনাবাহিনীর ২৬টি মেকানাইজড ইনফ্যান্ট্রি ব্যাটালিয়নে যোগ দিয়েছিলেন। তিনি ৫০ টি জাতীয় রাইফেলস ব্যাটালিয়নে কর্মরত ছিলেন এবং উত্তর প্রদেশের মুজাফফরনগর জেলার খানজাপুর গ্রামে ছিলেন।