Coconuts| নারকেল খেলে এই সমস্যা গুলো থেকে মুক্তি পেতে পারেন

Coconuts| নারকেল খেলে এই সমস্যা গুলো থেকে মুক্তি পেতে পারেন

ব্যাপক ছাড়ে  Amazon-এ শপিং করতে এই খানে ক্লিক করুন

আজ বাংলা :  ডাব-নারকেলের মেয়াদ অল্প, সে রসের মেয়াদ; ঝুনো নারকেলের মেয়াদ বেশি; সে শাঁসের মেয়াদ। কবিরা হল ক্ষণজীবী, ফিলজফরের বয়সের গাছপাথর নেই” লিখেছিলেন রবি ঠাকুর তাঁর ‘শেষের কবিতা’-য়। আর লিখবেন না-ই বা কেন? ছোটবেলা থেকেই নারকেল গাছ তাঁর সঙ্গী। “পুবদিকের পাঁচিল ঘেঁষে এক সার নারকেল গাছ।

সেই নারকেল গাছের কম্পমান পাতায় আলো পড়বে, শিশিরবিন্দু ঝলমল করে উঠবে, পাছে আমার এই দৈনিক দেখার ব্যাঘাত হয় এইজন্য আমার ছিল এমন তাড়া।” খাবারের মধ্যেও তাঁর সবচেয়ে পছন্দের ছিল— চিতল মাছ, চালতা দিয়ে মুগের ডাল এবং নারকেল চিংড়ি। বাঙালির পাতে নারকেলের কদরই আলাদা। গরম মশলা-ঘি-তেজপাতা-নারকেল দিয়ে ছোলার ডাল, নারকেল দিয়ে কচু বাটা, মুড়ির সঙ্গে ধানি লঙ্কা, ঝুনো নারকেল কোরা আর নারকেল নাড়ুর যে কী অপূর্ব স্বাদ, তা বাঙালিমাত্রেই জানেন। কেরলের খিচুড়িতে থাকবেই ভাত, মুগ ডাল, নারকেল আর বাদাম।

আমরা যারা ঘনাদার ‘পোকা’ গল্পটি পড়েছি তারা জানি, সে গল্প শুরুই হত না যদি না ঘনাদার ঘরে একটা বড় মাপের নারকুলে পোকা বা রাইনোসেরাস বিটল ঢুকত। শুধু রবি ঠাকুর কেন, গোটা ভারত বা এশিয়ার সংস্কৃতির সঙ্গে আষ্টেপৃষ্ঠে জড়িয়ে আছে যে ফল, তা নারকেল। বেন্থাম সাহেব তাঁর বিখ্যাত ট্রিজ় অব ক্যালকাটা অ্যান্ড নেবারহুড বইতে বলেছেন, খাস কলকাতায় বিশ শতকের প্রথম দশক অবধি আর যে গাছ থাকুক না কেন, নারকেল গাছের কমতি ছিল না। এই গাছ শকুনদের বড় প্রিয়। তারা এই গাছের ডালে সারি বেঁধে বসে থাকে। নারকেল দিয়ে আমরা অনেক সুস্বাদু মিষ্টি বানিয়ে খাই, বা নারকেল অনেক রান্নার কাজেও লাগে। কিন্তু আপনারা কি জানেন নারকেলের পুষ্টিগুণ সম্পর্কে?? যদি না জানেন তবে জেনে নিন নারকেলের পুষ্টিগুণ - 

১) নারকেল খেলে ত্বকের আর্দ্রতা বজায় থাকে। তার কারণেই রোজ নারকেল খেলে ত্বক কোমল ও সুন্দর হয়। আপনার ত্বকে যদি বয়সের ছাপ চলে আসে তাহলে নারকেল তা থেকে আপনাকে মুক্তি দেবে।

২) নারকেল তেল আমাদের চুলে পুষ্টি যোগান দেয়। নারগুন খেলে চুলের খুশকি কম হয় ও চুল পড়া বন্ধ হয়।

৩) শক্তি যোগাতে সাহায্য করে নারকোল। তাৎক্ষণিকভাবে শক্তি জোগানোর জন্য যদি আপনার খিদে পায় তাহলে নারকোল খেলে কাজে উদ্দীপনা ফিরে আসে।

৪) নারকেল রক্তে কোলেস্টেরলের পরিমাণ কমাতে সাহায্য করে। ফলে হার্টের সমস্যা দূর হয়।

৫) ইনসুলিনের মাত্রা রক্তের স্বাভাবিক রাখতে নারকেল অনেক কাজ করে, ফলে ডায়াবেটিস জনিত সমস্যা আপনার খুব তাড়াতাড়ি হবে না।

৬) অতিরিক্ত ওজন কমাতে সহায়ক নারকেল। অল্প ক্যালরিতে মেটাবলিজম বৃদ্ধি করে শরীরে শক্তি যোগায়।নারকেল খেলে তাড়াতাড়ি খিদে পায় না।