সুজির উপকারিগুন জানলে আপনিও অবাক হবেন

সুজির উপকারিগুন জানলে আপনিও অবাক হবেন

সুজি হল গম থেকে তৈরি একপ্রকার প্রক্রিয়াজাত খাদ্য উপাদান, যা দ্বারা প্রধানত বিভিন্ন প্রকার মিষ্টান্ন তৈরি করা হয়| গম ছাড়া চাল এবং ভুট্টা থেকেও এটি তৈরি করা হয়| সুজি উপকারিতা সম্পর্কে জানলে আপনিও সুজি খেতে আগ্রহী হবেন। আসুন জেনে নেয়া যাক সুজির উপকারিতা সম্পর্কে—

ওজন কমাতে সাহায্য করে : ওজন কমানোর ক্ষেত্রে সুজি বিশেষ রকম ভাবে কাজ করে। সুজি অত্যন্ত ফাইবারযুক্ত খাদ্য। ফাইবার আমাদের দেহের এমন একটি অপরিহার্য পুষ্টি যা ওজন কমাতে সাহায্য করে। এই ফাইবার সমৃদ্ধ খাদ্য অনেকটা সময় ধরে পেট ভর্তি রাখে এবং অতিরিক্ত খাদ্য গ্রহণের প্রবণতা হ্রাস পায়। এইভাবে সহজেই দেহের ওজন হ্রাস পায়। 

রক্তাল্পতা দূর করে : আয়রন একটি শরীরের প্রয়োজনীয় উপাদান। আয়রনের পরিমাণ কম থাকার ফলেই শরীরে রক্তাল্পতার সৃষ্টি হয়।  সুজিতে ১৩℅ আয়রন থাকায় এটি রক্তাল্পতা দূর করতে সাহায্য করে। 

ডায়াবেটিস কমাতে : ডায়াবেটিস রোগ নিয়ন্ত্রনের ক্ষেত্রে সুজির ভূমিকা অপরিসীম।  সুজিতে অল্প পরিমাণে গ্লাইকেমিক উপাদান থাকে যা ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য খুবই উপকারী । 

শরীরে শক্তি বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে :  আমাদের শরীরের প্রত্যেকটি অঙ্গ ঠিকমতন কাজ করার জন্য শরীরে নির্দিষ্ট পরিমাণ শক্তির প্রয়োজন রয়েছে। আর সুজি শক্তির একটি অন্যতম প্রধান উৎস হিসেবে কাজ কর

 ত্বক সুস্থ রাখতে  :  সুজি ত্বকের তারুণ্যর ধরে রাখতে সাহায্য করে। সুজি খাওয়ার ফলে ত্বক স্থিতিস্থাপক হবে ক্ষতিগ্রস্থ চুল এবং নখ পুনরুদ্ধার করবে।

হার্ট ভালো রাখতে : সুজি প্রচুর পরিমাণে ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার। খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা ও রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে সুজি। এর ফলে হার্ট সুস্থ থাকে। 

কোষ্ঠকাঠিন্য কমাতে : সুজি ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার হওয়ায় এটি হজমে সহায়তা করে। এবং এর ফলে কোষ্ঠকাঠিন্য নিরাময় হয়। 

প্রতি ১০০ গ্ৰাম সুজি তে যে পরিমাণ পুষ্ট উপাদান থাকে তা হল —শক্তি ৩৬০ কিলোক্যালরি, শর্করা ৭২.৮৩ গ্ৰাম, স্নেহ পদার্থ ১.০৬ গ্ৰাম, প্রোটিন ১২.৬৮ গ্ৰাম, ক্যালসিয়াম ১৭ মিলিগ্ৰাম, লৌহ ১.২৩ মিলিগ্ৰাম, জিঙ্ক ১.০৫ মিলিগ্ৰাম।