তৃণমূলের অর্ন্তর্দ্বন্দ্বের জেরেই আক্রান্ত জাকির দাবি অধীরের

তৃণমূলের অর্ন্তর্দ্বন্দ্বের জেরেই আক্রান্ত জাকির দাবি অধীরের

নিমতিতা স্টেশনে মন্ত্রী জাকির হোসেনের উপর বোমা হামলার ঘটনা নিয়ে এ বার রাজনৈতিক তরজায় কংগ্রেস তৃণমূল। শনিবার দুপুরে বহরমপুরে সাংবাদিক বৈঠকে লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী বলেন, ''পুলিশ না পারলে আমাদের ছেড়ে দিক, আমরা জাকিরের উপর হামলা তদন্ত করছি।''

সেই সঙ্গে মুর্শিদাবাদ জেলার পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠার জন্য রাজ্যের সাসক দলকে নিশানা করেন তিনি। বহরমপুরের কংগ্রেস দফতরে সাংবাদিক বৈঠকের কিছুক্ষণ পরেই জেলা তৃণমূলের সভাপতি তথা মুর্শিদাবাদের সাংসদ আবু তাহের খান সরাসরি জাকিরের উপর হামলার জন্য অধীর এবং শুভেন্দু অধিকারীকে দায়ী করেন।

তিনি বলেন, ''এই চক্রান্তের পিছনে বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীর হাত রয়েছে। মুর্শিদাবাদ জেলাতে বিজেপি-র এ-টিম হিসেবে কংগ্রেস দল কাজ করে। অর্থাত্‍ শুভেন্দু এবং অধীর একত্রিত হয়ে জাকিরকে খুন করার চক্রান্ত করেছেন। রাজ্য সরকার সিবিআই তদন্তের দাবি করছে। আমাদের আশা শীঘ্রই অপরাধীরা ধরা পড়বে এবং যারা এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত, তাদের মুখোশ খুলে যাবে।''

অধীর শনিবার বলেন, ''মুখ্যমন্ত্রী না পারলে আমাদের ছেড়ে দিন তদন্ত। প্রশাসনকে বলুন আমরা যা চাই তা যেন করে। ২৪ ঘণ্টা লাগবে না চ্যালেঞ্জ করছি।'' সেই সঙ্গে তাঁর অভিযোগ, ''তৃণমূলের অর্ন্তর্দ্বন্দ্বের বিস্ফোরণ এটা। জাকিরের অপরাধ, ও সত্‍ ভাবে রাজনীতি করতে চেয়েছিল। ও গরু পাচারকারীদের সঙ্গে হাত মেলাতে চায়নি। জাকির দুর্নীতির সঙ্গে আপস করেনি। তাই জাকিরের উপর হামলা। যাতে জাকির আগামী নির্বাচনে ভোটে দাঁড়াতে না পারে।