মালদায় ৪৭ ফুটের কালী মূর্তি বিসর্জনে গিয়ে মর্মান্তিক মৃত্যু এক চা বিক্রেতার।

কালী মূর্তি বিসর্জন
কালী মূর্তি বিসর্জন

দেবু সিংহ আজবাংলা মালদা- ৪৭ ফুটের কালী মূর্তি ভাসানে গিয়ে মর্মান্তিক মৃত্যু এক চা বিক্রেতার। বুলবুলচন্ডী এলাকায় এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। প্রতিমার পাটাতনের নীচে চাপা পড়ে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে বলে জানা গেছে। পাটাতনের নীচ থেকে তাঁকে উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় মালদা মেডিক্যালে নিয়ে গেলে সেখানে তাঁর মৃত্যু হয়। এই ঘটনায় বেশ কিছুক্ষণ ভাসানের শোভাযাত্রা স্থগিত থাকে। পরে আবার ভাসান হয়। জানা গেছে মৃতের নাম হারু সিংহ(‌৫০)‌। বুলবুলচন্ডী বাজারেই তাঁর চায়ের দোকান। বুলবুলচন্ডী এলাকাতে তাঁর বাড়ি।

রবিবার দুপুরে ভাসানের সময় তিনিও ছিলেন। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, প্রতিমার ভাসানের সময় তিনিও অন্যদের মতো কাজে ব্যস্ত ছিলেন। আচমকা সবার অলক্ষ্যে মা কালীর পাটাতনের নীচে চলে গেলে প্রতিমার কাঠামোর নীচে পৃষ্ট হন তিনি। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে মালদা মেডিক্যালে আনা হলে সেখানে তাঁর মৃত্যু হয়। এই ঘটনায় শোকের ছায়া বুলবুলচন্ডী এলাকায়। হবিবপুর ব্লকের বুলবুলচন্ডী বাজার সর্বজনীন কালীপুজোর রবিবার ছিল ভাসান। ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে এদিন শোভাযাত্রার বের হয়। কালীপুজোর ১৪ দিনের মাথায় দেবীর ভাসান হচ্ছে। আগে প্রতিমা ১৫ দিন রাখা হত, এখন সেটা কমিতে ১৩ দিনে আনা হয়েছে। গতকাল শনিবার থাকায় এদিন ভাসানের ব্যবস্থা করা হয়। প্রতি বছরের মতো এবারও ৪৭ ফুটের কালীমূর্তি ভাসানে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। বিশালাকার এই কালী দক্ষিণাকালী নামেই পরিচিত। পুজো উপলক্ষ্যে মেলাও চলে ক’‌দিন ধরে। বিসর্জনের সময় মণ্ডপ থেকে প্রায় ৫০০ মিটার দূরে একটি পুকুরে বিসর্জন করা হয়। প্রতিমার কাঠামোর নীচে কোনও চাকা থাকে না। বাঁশের উপরে রেখে টেনে নিয়ে গিয়ে স্থানীয় ওই পুকুরে প্রতিমা বিসর্জন করা হয়। বাঁশের ওপরে রেখে প্রতিমা সরাতে যাওয়ার সময় দুর্ঘটনাটি ঘটে।

এমন সমস্ত আপডেট পেতে লাইক দিন!