মালদায় পাথর ব্যবসায়ীকে গুলি করে খুনের চেষ্টার অভিযোগ প্রতিবেশী যুবকের বিরুদ্ধে।

দেবু সিংহ আজবাংলা মালদা এক পাথর ব্যবসায়ীকে গুলি করে খুনের চেষ্টার অভিযোগ উঠল প্রতিবেশী এক যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে, মঙ্গলবার ভোর ৫টা নাগাদ, বৈষ্ণবনগর থানার ১৭ মাইল এলাকায়।আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই ব্যবসায়ীর চিকিৎসা চলছে মালদা শহরের বেসরকারি নার্সিং হোমে।পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গুলিবিদ্ধ ব্যবসায়ীর নাম সন্তোষ মন্ডল(৩২)। অভিযুক্ত সনাতন মন্ডল। ঘটনার পর বৈষ্ণবনগর থানায় আত্মসমর্পণ করে অভিযুক্ত বলে জানা গিয়েছে। মঙ্গলবার ভোরে বাড়ি থেকে বেরিয়ে পেট্রোল পাম্পে তেল ভরে যাওয়ার পথে হঠাৎ আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে সন্তোষ মন্ডলকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে সনাতন মন্ডল বলে অভিযোগ। সন্তোষের গলায় গুলি লাগে। এরপর অভিযুক্ত সেখান থেকে পালিয়ে বৈষ্ণবনগর থানায় আত্মসমর্পণ করে। পরিবারের লোকেরা খবর পেয়ে তড়িঘড়ি রক্তাক্ত অবস্থায় সন্তোষ মন্ডলকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্র এবং সেখান থেকে মালদা শহরের যদুপুর এলাকায় একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে ভর্তি করে। সঙ্কটজনক অবস্থায় সেখানে তার চিকিৎসা চলছে। আহত ব্যবসায়ীর স্ত্রী পুনম মন্ডল জানিয়েছেন, অভিযুক্ত এবং তার স্বামী একসাথে ব্যবসা করতেন। বালি পাথর নিয়ে তাদের ব্যবসা। হঠাৎ তার স্বামী সন্তোষ আলাদাভাবে ব্যবসা শুরু করে। গত কয়েকদিন আগে তাদের দুজনের মধ্যে বচসা হয় তখন অভিযুক্ত সনাতন মন্ডল গুলি করে মারার হুমকি দেয় তার স্বামীকে। মঙ্গলবার ভোর পাঁচটা নাগাদ, তাকে সামনে পেয়ে গুলি ছোড়ে অভিযুক্ত।আহত ব্যবসায়ীর শাশুড়ি রানী মন্ডল জানিয়েছেন, গুলি করে তার জামাইকে খুনের চেষ্টা করে সনাতন। তার কঠোর শাস্তির দাবি করেন তিনি।পুলিশ সুপার অলক রাজোরিয়া জানিয়েছেন, ব্যবসায়ীকে গুলি করে খুনের চেষ্টার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে সনাতন মন্ডল নামে এক যুবককে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।