বাবা কাজ করতেন কয়লাখনিতে, কষ্টে করে লেখাপড়া শিখে ছেলে আজ ডিএসপি

বাবা কাজ করতেন কয়লাখনিতে, কষ্টে করে লেখাপড়া শিখে ছেলে আজ ডিএসপি

আজবাংলা          মনের জোর, নিজের উপর বিশ্বাস আর তারসঙ্গে শিক্ষা মানুষকে পৌঁছে দেয় সেরার শিরোপায় | আজ আমরা এমন একটি ছেলের কথা জানব যাদের গ্রামে ৭০ বছর ধরে কোনও বিদ্যুৎ পৌঁছয়নি | যার বাবা কাজ করতেন কয়লারখনিতে | ছোট থেকে সেই ভাবে ভালো করে পড়াশুনার করার সুযোগ পাননি | 

কিশোর কুমার রাজাক | তিনি থাকেন ঝাড়খণ্ডের বোকারোতে | তার জন্ম হয়েছিল একটি দরিত্র পরিবারে | সে এমন একটি গ্রাম থেকে উঠে এসেছে যেখানে কেউ কোনদিন সরকারি পদে চাকরি করেননি | আজ সেই গ্রামের ছেলেই হয়ে উঠলেন ডিএসপি | 

কিশোর -এর বাবা একটি  কয়লা খনিতে কাজ করতেন | কিশোরকে পড়াশুনার জন্য ভর্তি করে দেয়া হয়েছিল একটি সরকারি স্কুলে | দরিদ্র পরিবার হলেও তার পরিবার সবসময় কিশোরকে উৎসাহ দিতে পড়াশুনার ব্যাপারে | তার বাবা চাইতেন সে যেন কালেক্টর হয় | 

পড়াশোনার পাশাপাশি কিশোর কৃষিকাজও করত | সব দিক সামলে পরিবারের উৎসাহ নিজের চেষ্টাই আজ সে হয়ে উঠেছে ডিএসপি | কিশোর দশম ও দ্বাদশ পাস করে ইতিহাসে স্নাতক হয়েছেন | গ্র্যাজুয়েশন চলাকালীন তৃতীয় বর্ষেও ব্যর্থ হয়েছিল, তবে তিনি ভেঙে পড়েননি এবং হাল ছাড়েন না | সে শুরু করে ইউপি এসসি-র জন্য প্রস্তুতি নিতে |

এরপর তিনি আত্মীয়দের কাছ থেকে টাকার সাহায্য চাইতে শুরু করেন এবং দিল্লিতে আসার জন্য প্রস্তুতি নিতে শুরু করেন | ২০১১ সালে ইউপিএসসি পরীক্ষা দিয়েছিলেন কিশোর | তারপরে তিনি প্রথম প্রয়াসে সহকারী কমান্ড্যান্ট হন | এর পরে তিনি ডিএসপিতে নির্বাচিত হন | 

আজ সকলের কাছে তিনি অনুপ্রেরণা হয়ে উঠেছেন | ছোট থেকে কষ্ট করে লেখাপড়া শিখে যেই ভাবে নিজের জায়গা অর্জন করেছেন কিশোর তা সত্যিই দেখার মতো | হাজার হাজার ছেলে-মেয়ে অনুপ্রাণিত হচ্ছে কিশোরকে দেখে | 

[ আরও পড়ুন হোমিওপ্যাথি ]