নদিয়ার এক শাসক দলের বিধায়কের বাড়িতে দুঃসাহসিক চুরি

আজবাংলা    পলাশিপাড়া       নদিয়ার পলাশিপাড়ায় বিধায়ক তাপস সাহার বাড়িতে দুঃসাহসিক চুরি ঘটনা ঘটল। শুক্রবার রাতে তেহট্ট থানার কড়ুইগাছি বাড়িতে থাকা তাঁর অফিস ঘরের তালা ভেঙে চোর লুঠপাট চালায় বলে অভিযোগ।চুরির ঘটনাটি প্রথম টের পান বিধায়ক নিজেই৷ শনিবার ভোর পাঁচটায় ঘুম থেকে নীচে নেমে আসার পর দেখতে পান অফিস ঘর খোলা৷ তখনই সন্দেহ হয় তাঁর৷ এরপর ঘরে ঢুকে দেখেন আলমারির দরজা হাট করে খোলা৷ অফিস ঘরের বাইরে সিসি ক্যামেরা বসানো৷ কিন্তু ক্যামেরাগুলি প্লাসিটের ক্যারিব্যাগ এবং বস্তা দিয়ে ঢেকে কুকর্ম করে চোর৷রাত আড়াইটে নাগাদ তাপসবাবুর বাড়িতে লোডশেডিং হয়। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, সেই সময়ই চুরি হয়েছে। পুলিস সূত্রে খবর, দুষ্কৃতীরা বস্তা দিয়ে দুটি সিসিটিভি ক্যামেরাকে ঢেকে দেয়।শনিবার সকালে বিধায়ক অফিসে এসে দেখেন ঘরের জিনিস অগোছালো হয়ে পড়ে রয়েছে।একটি সিসিটিভি ক্যামেরা চোরের উপস্থিতি ধরা পড়ে। এক ব্যক্তিকে গ্লাভস, মাস্ক পরিহিত অবস্থায় আলমারি খুলে চুরি করতে দেখা যায়।বিধায়ক বলেন, শুক্রবার থেকেই অফিসের একটি চাবি খুঁজে পাচ্ছিলাম না। তাঁর অনুমান, সম্ভবত ডুপ্লিকেট চাবি ব্যবহার করে আলমারি খোলা হয়েছে। এটি কোন পাকা চোরের কাজ বলেই মত তাঁর। বিধায়ক জানান, বড়সড় ক্ষতি হয়ে গেল।এদিন সকালে তেহট্টে থানার আইসি তাপস পাল এবং এসডিপিও কার্তিক মণ্ডল ঘটনাস্থলে যান।পুলিশ জানিয়েছে, তাপসবাবুর অফিসের বাইরে এবং ভেতরে সব মিলিয়ে মোট তিনটি সিসি ক্যামেরা লাগানো ছিল৷দুটিকে আড়াল করে এই কাজ করেছে দুষ্কৃতীরা। তবে একটি ক্যামেরায় একজনকে দেখা গিয়েছে। চোখ মুখ ঢেকে ঘরের ভিতরের আলমারি খুলছে সে। ঘটনার সঙ্গে যুক্ত দুষ্কৃতীদের খোঁজার পাশাপাশি পরিচিত কেউ যুক্ত কিনা সবদিকই খতিয়ে দেখছে পুলিশ।