২৩ বছর পর হারানো জমি ফিরে পেল ফাঁসিদেওয়ার বৃদ্ধ দম্পতি

বিশ্বজিৎ সরকার, ফাঁসিদেওয়া দীর্ঘ ২৩ বছর ধরে লড়াই করে যাচ্ছে শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদের অন্তরর্গত ফাঁসিদেওয়া ব্লকের বন্দরগছ এলাকার বৃদ্ধ দম্পতি। অবশেষে হারানো জমি ফিরে পেয়ে মুখে হাসি ওই বৃদ্ধা দম্পতির। জানা গিয়েছে যে লক্ষী দেবনাথের জমি তারই নিকট পাঁচ আত্মীয় দখল করে। এবং সেই জমি ভোগ করতে থাকেন। যদিও বহুবার তাদের আত্মীয়দের বলা হয়। কিন্তু তারা কোন কথা শুনেনি। এমনকি ওই বৃদ্ধ দম্পতির উপর মারধর করে। অবশেষে কোন উপায় না পেয়ে আইনের দারস্থ হন ওই বৃদ্ধ দম্পতি লক্ষী দেবনাথ ও দধি মোহন দেবনাথ। এরপর জমি ফেরত পেতে ১৯৯৬ সালে জুন মাসের ২৯ তারিখে শিলিগুড়ি আদালতে যান। এবং শুরু হয় লড়াই। দীর্ঘ কয়েক বছর লড়াই করার পর সব কিছু বিবেক বিবেচনা করার পর বিচারক তাদের পক্ষে রায় দেন। এবং ১৯ ডেসিমিল জমি বিচারক কমিশনারকে নির্দেশ দেন যে ওই জমি দখল মুক্ত করে বৃদ্ধ দম্পতিকে বুঝিয়ে দিতে। কিন্তু ফাঁসিদেওয়া থানায় পর্যাপ্ত মহিলা ফৌর্স না থাকায় বেশ কিছুদিন দেরি হয়ে যায়। এরপর কমিশনারের নেতৃত্ব বিশাল পুলিশ বাহিনী নিয়ে গিয়ে ওই জমি দখল মুক্ত করেন। এবং সবশেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে কমিশনার ভাস্কর দাস বলেন যে আমাকে আদালত থেকে কমিশন হিসাবে নিয়োগ করে আমাকে পাঠিয়েছে জমিটি দখল মুক্ত করতে। সেই জন্য এদিন এসে তা দখল মুক্ত করা হল। অপরদিকে ওই বৃদ্ধ দম্পতি লক্ষী দেবনাথ বলেন যে আমরা আমাদের হারানো জমি ফিরে পেয়ে খুবই খুশি। আমাদের আইনের উপর বিশ্বাস ছিল। এটাই আমরা চেয়েছিলাম।