আজকের পঞ্জিকা সোমবার ২০ ডিসেম্বর

আজকের পঞ্জিকা সোমবার ২০ ডিসেম্বর

আজকের পঞ্জিকা  ৪ পৌষ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, সোমবার, ইংরেজী: ২০ ডিসেম্বর ২০২১, ৫৩৫ চৈতনাব্দ, কলি: ৫১২২, সৌর: ৫ পৌষ, চান্দ্র: ১৬ নারায়ন মাস, ১৯৪৩ শকাব্দ /২০৭৮ বিক্রম সাম্বৎ, ২৫৬৫ বুদ্ধাব্দাঃ, বাংলাদেশ: ৫ পৌষ ১৪২৮, ভারতীয় সিভিল: ২৯ অগ্রহায়ন ১৯৪৩, মৈতৈ: ১৬ পোইনু, আসাম: ৪ পুহ,সূর্য উদয়: সকাল ০৬:১৪:০৬ এবং অস্ত: বিকাল ০৪:৫৩:৪৫।

চন্দ্র উদয়: বিকাল ০৫:৫১:০০(২০) এবং অস্ত: সকাল ০৭:৫৩:০২(২১)। কৃষ্ণ পক্ষ |তিথি: দ্বিতীয়া (ভদ্রা) নক্ষত্র: আর্দ্রা রাত্রি: ০৬:৩৭:৫১ দং ৩০/৫৯/১০ পর্যন্ত পরে পুনর্বসু করণ: তৈতিল রাত্রি: ১১:৪৪:৩৪ দং ৪৩/৪৫/৫৭.৫ পর্যন্ত পরে গর যোগ: ব্রহ্ম অমৃতযোগ: দিন ০৬:১৪:১১ থেকে - ০৭:৩৯:২৯ পর্যন্ত, তারপর ০৯:০৪:৪৬ থেকে - ১১:১২:৪২ পর্যন্ত এবং রাত্রি ০৭:৩৩:৫৫ থেকে - ১১:০৭:২০ পর্যন্ত, তারপর ০২:৪০:৪৬ থেকে - ০৩:৩৪:০৭ পর্যন্ত।

কুলিকবেলা: দিন ০২:০৩:১৬ থেকে - ০২:৪৫:৫৫ পর্যন্ত। কুলিকরাত্রি: ০১:৪৭:২৫ থেকে - ০২:৪০:৪৬ পর্যন্ত। বারবেলা: দিন ০২:১৩:৫৬ থেকে - ০৩:৩৩:৫৩ পর্যন্ত। কালবেলা: দিন ০৭:৩৪:০৯ থেকে - ০৮:৫৪:০৬ পর্যন্ত। কালরাত্রি: ০৯:৫৩:৫৯ থেকে - ১১:৩৪:০১ পর্যন্ত। 

ইতিহাসে আজকের দিন

  • ১৭৫৭ - রবার্ট ক্লাইভ বাংলার গভর্নর নিযুক্ত হন।
  • ১৭৮০ - ইংল্যান্ড নেদারল্যান্ডসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে।
  • ১৭৯০ - আমেরিকায় প্রথম কটন মিল চালু হয়।
  • ১৮৩০ - ইংল্যান্ড, ফ্রান্স, প্রুশিয়া, অস্টিয়া, রাশিয়া বেলজিয়ামকে স্বীকৃতি দেয়।
  • ১৯২৩ - লাহোরে হিন্দু-মুসলমান সম্প্রদায়িক দাঙ্গা লাগে।
  • ১৯২৫ - বঙ্গীয় গ্রস্থাগার পরিষদ স্থাপিত হয়।
  • ১৯৩৯ - রেডিও অস্ট্রেলিয়া আন্তর্জাতিক শর্টওয়েভ সম্প্রচার শুরু করে।
  • ১৯৪২ - মাঝরাতে কলকাতার আকাশে জাপানি বিমান হানা দেয়।
  • ১৯৫৭ - সানফ্রান্সিসকো চলচ্চিত্র উৎসবে সত্যজিৎ রায় পরিচালিত ‘পথের পাঁচালী’ শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্রের পুরস্কার লাভ করে।
  • ১৯৬০ - দক্ষিণ ভিয়েতনামে জাতীয় মুক্তিফ্রন্ট গঠিত হয়।
  • ১৯৭১ - ইয়াহিয়া খান পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতির পদ থেকে ইস্তফা দেন এবং জুলফিকার আলী ভুট্টো পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হন।
  • ১৯৭৪ - পর্তুগাল বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দান করে।
  • ১৯৮৮ - প্রধানমন্ত্রী রণসিংহে প্রেমাদাসা শ্রীলঙ্কার রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন।

জন্ম

  • ১৫৩৭ - সুইডেনের রাজা তৃতীয় জন।
  • ১৮৪১ - ফার্দিনান্ড ফেরডিনান্ড বুইস্‌ন, নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ফরাসি অধ্যাপক ও রাজনীতিবিদ।
  • ১৮৬৬ - সাংবাদিক ও সম্পাদক পাঁচকড়ি বন্দ্যোপাধ্যায়।
  • ১৮৯০ - জারস্লাভ হেয়রভসকয়, নোবেল পুরস্কার বিজয়ী চেক রসায়নবিদ ও অধ্যাপক।
  • ১৮৯৪ - অস্ট্রেলিয়ার রবার্ট মেনযিয়েস, অস্ট্রেলিয়ান আইনজীবী, রাজনীতিবিদ ও ১২ তম প্রধানমন্ত্রী।
  • ১৯০৫ - বিল ও’রিলি, বিখ্যাত অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার।
  • ১৯১৫ - আজিজ নেসিন, তুর্কি লেখক ও কবি।
  • ১৯১৯ -খালেদ চৌধুরী,বাংলার প্রখ্যাত নাট্যব্যক্তিত্ব ।
  • ১৯৩১ - বদরুদ্দীন উমর, বাংলাদেশের মার্কসবাদী-লেনিনবাদী লেখক।
  • ১৯৫৬ - মোহাম্মদ ওউলদ আবদেল আজিজ, মৌরিতানিয়ার সাবেক জেনারেল, রাজনীতিবিদ ও রাষ্ট্রপতি।
  • ১৯৬৫ - রবার্ট কাভানাহ, স্কটিশ অভিনেতা ও পরিচালক।
  • ১৯৭০ - গ্রান্ট ফ্লাওয়ার, জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটার ও কোচ।
  • ১৯৮০ - অ্যাশলি কোল, ইংরেজ ফুটবল খেলোয়াড়।
  • ১৯৮২ - মোহাম্মদ আসিফ, পাকিস্তানি ক্রিকেটার।
  • ১৯৯০ - জোজো, আমেরিকান গায়ক, গীতিকার ও অভিনেত্রী।

মৃত্যু

  • ১৫৯০ - আম্ব্রইসে পারে, ফরাসি চিকিৎসক ও সার্জন।
  • ১৭৩৭ - চীনের সম্রাট কাংজির মৃত্যুবরণ করেন।
  • ১৯১৫ - উপেন্দ্রকিশোর রায়চৌধুরী, বাঙালি শিশুসাহিত্যিক, বাংলা মুদ্রণের পথিকৃৎ।
  • ১৯২৯ - এমিলি লউবেট, ফরাসি আইনজীবী, রাজনীতিবিদ ও ৮ম প্রেসিডেন্ট।
  • ১৯৫৪ - জেমস হিল্টন, একজন ইংরেজ ঔপন্যাসিক।
  • ১৯৬৮ - জন স্টাইন্‌বেক্‌, নোবেল পুরস্কার বিজয়ী আমেরিকান লেখক।
  • ১৯৭৪ -রজনীপাম দত্ত, বিশিষ্ট সাংবাদিক ও বৃটিশ কমিউনিস্ট পার্টির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য।
  • সীতা দেবী, প্রখ্যাত বাঙালি লেখিকা।
  • ১৯৭৯ -সতীশচন্দ্র দাশগুপ্ত, প্রখ্যাত গান্ধীবাদী নেতা ও গঠনমূলক সেবাকার্য ও পল্লীউন্নয়নের বিভিন্ন পদ্ধতির আবিষ্কারক।
  • কমলা ঝরিয়া, বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী।
  • ১৯৯০ - মাহমুদুন্নবী, বাংলাদেশি সঙ্গীতশিল্পী
  • ১৯৯১ - সিমন ব্যাক, ফরাসি শেফ ও লেখক।
  • ১৯৯৬ - বিখ্যাত মার্কিন জ্যোতির্বিজ্ঞানী কার্ল সেগান।
  • ১৯৯৮ - অ্যালেন লয়েড হডজিকিন, নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ইংরেজ শারীরবিজ্ঞানী ও জৈবপদার্থবিদ।
  • ২০০৫ - শাহ আবরারুল হক হারদুয়ী, ভারতীয় ইসলামি পণ্ডিত ও ধর্ম সংস্কারক।
  • ২০০৯ - দীপালি নাগ রাগপ্রধান গানের প্রথম মহিলা বাঙালি শিল্পী। 
  • ২০১২ - স্ট্যান চার্লটন, ইংরেজ ফুটবল খেলোয়াড় ও ম্যানেজার।
  • ২০১৩ - সৈয়দা জোহরা তাজউদ্দীন৷
  • ২০১৪ - মাকসুদুল আলম বাংলাদেশী জিনতত্ত্ববিদ, পেঁপে, রাবার, পাট এবং ছত্রাক জিনোম উদ্ভাবক।
  • ২০১৮ - সরকার ফিরোজ, মুক্তিযোদ্ধা ও বাংলাদেশের মিডিয়া ব্যক্তিত্ব।