আমেরিকাতেও ব্যান হতে পারে টিকটক সহ একাধিক চিনা অ্যাপ

আমেরিকাতেও ব্যান হতে পারে টিকটক সহ একাধিক চিনা অ্যাপ
আজ বাংলাঃ   ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ করার পর বিশ্বব্যাপী কূটনৈতিক মহলে চাপে রয়েছে চিন। শুধু ভারতই নয়, প্রতিবেশী জাপান-ও বেজিং-এর ওপর বেজায় চটে। করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর আমেরিকা তো লাগাতার কাঠগড়ায় তুলেছে ড্রাগনের দেশ চিনকে। এবার ভারতের পথে হেঁটে তারাও নিষিদ্ধ করতে পারে চিনা অ্যাপ, সম্ভাবনা এমনই। বাজার হারানোর ভয়ে এদিকে টিকটক সংস্থাও নিজেদের স্বতন্ত্রতা প্রমাণ করতে মরীয়া। তাদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, চিনের সঙ্গে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সম্পর্ক ছিন্ন করতে চায় টিকটক। তাই বেজিং-এর হাতে গ্রাহকদের তথ্য চলে যাবে না বলে আশ্বস্ত করা হচ্ছে কোম্পানির পক্ষ থেকে। সংস্থার পক্ষ থেকে যাই বলা হোক না কেন, বিশ্বের দরবারে চিন এখন একেবারে কোণঠাসা। প্রায় একই অবস্থায় সেখানে অবস্থিত কোম্পানিগুলির। সোমবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিদেশ সচিব মাইক পম্পেও জানিয়েছে, আমেরিয়াক চিনা অ্যাপ ব্যান করা হবে কি না সে ব্যাপারে নিশ্চিত রূপে আলোচনা শুরু হয়ে গিয়েছে। এক 3 সংবাদমাধ্যমে মার্কিন বিদেশ সচিব বলেছেন, "(মার্কিন রাষ্ট্রপতি) ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে প্রস্তাব নিয়ে যাওয়ার আগে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।" আলোচনার পর কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় সে দিকে অবশ্যই নজর থাকবে সকলের। কিন্তু এরকম চলতে থাকলে বহু কোম্পানিই যে চিন থেকে সরে যেতে চাইবে তা বলাই বাহুল্য।