কোয়ম্বত্তুর হাসপাতালে অরিন্দমবাবু চিকিত্সা। রাজ্যের চিকিত্সায় ভরসা নেই মুখ্যমন্ত্রীর। বিরোধীদের কটাক্ষ,

responsible for the communal riots in Raniganj?
সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে বোমার আঘাতে গুরুতর জখম
responsible for the communal riots in Raniganj?
সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে বোমার আঘাতে গুরুতর জখম

আজবাংলা  রানিগঞ্জে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় বোমার আঘাতে জখম পুলিশ আধিকারিক অরিন্দম দত্ত চৌধুরীকে শেষ পর্যন্ত দুর্গাপুর থেকে দক্ষিণ ভারতের কোয়ম্বত্তুরের একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে । সোমবার বিকেলে রানিগঞ্জের একটি হাসপাতাল থেকে আসানসোল-দুর্গাপুর কমিশনারেটের ডেপুটি কমিশনার (সদর) অরিন্দমবাবুকে ভর্তি করানো হয় দুর্গাপুরের বিধাননগরে একটি বেসরকারি হাসপাতালে। রাতে তিন জনের চিকিত্সক দল তাঁর হাতের অস্ত্রোপচার করে। রাজ্য সরকারের পাঠানো চিকিত্সক অরিন্দমবাবুর চিকিত্সা যথাযথ হচ্ছে বলার পরেও এ ভাবে তাঁকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ায় প্রশ্ন তুলেছেন বিরোধীরা। কী ভাবে ওই পুলিশকর্তা জখম হলেন, রাজ্যপাল দেখা করতে চাই লেও দেখতে দেয়া হয়নি । দুর্গাপুরের হাসপাতালে পুলিশ আধিকারিককে রাজ্যপালের দেখতে আসার প্রস্তাব নবান্ন নাকচ করে দেওয়ায় এই বিতর্ক আরও জোরাল হয় এতেই বিরোধীরা প্রশ্ন তুলেছেন ভুল নির্দেশে পুলিশকে আক্রান্ত হতে হয়েছে। মানুষকে বিপদে পড়তে হয়েছে। এখন আবার জখম পুলিশ অফিসারকে ভিন্‌ রাজ্যে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হল। এ ভাবে সব চাপা দেওয়া যাবে না। এত দিন বিরোধীরা বলতেন, এ রাজ্যের বেহাল চিকিৎসা পরিকাঠামোর কথা। এখানকার চিকিত্সা ব্যবস্থার প্রতি মুখ্যমন্ত্রীরও যে আস্থা নেই, সেটা প্রমাণ হল।’’ এ দিন দুপুরে দুর্গাপুরের হাসপাতালে জখম দলীয় কর্মীকে দেখতে এসে লকেটের অভিযোগ, ‘‘আসানসোলে অশান্তির জন্য মুখ্যমন্ত্রী দায়ী। জখম পুলিশ আধিকারিককে নিয়েও তিনি রাজনীতি করছেন।’’