এ ভি বি পি'র প্রতিবাদ মিছিল ঘিরে তুলকালাম যোধপুর পার্কে, মিছিল আটকাল পুলিস

শুভাশীষ কর আজবাংলা গত বৃহষ্পতিবার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে এ ভি বি পি আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও গায়ক বাবুল সুপ্রিয় এবং বিশিষ্ট সমাজসেবী অগ্নিমিত্রা পল অতি বাম মোনভাবাপন্ন বহিরাগত ছাত্রছাত্রীদের দ্বারা নিগৃহীত হবার প্রতিবাদে এ ভি বি পি রাজ্য কমিটির পক্ষ থেকে গোলপার্ক থেকে যাদবপুর পর্যন্ত প্রতিবাদ মিছিলের ডাক দেয় । মিছিলে প্রচুর এ ভি বি পি সমর্থক ও কর্মী অংশ নেবার জন্য গোলপার্কে বেলা ১২টা থেকে এ ভি বি পি পতাকা ও জাতীয় পতাকা হাতে জমায়েত করা শুরু করে । আবার এই মিছিলকে কেন্দ্র করে ও প্রতিহত করার লক্ষ্যে বাম মনোভাবপন্ন ও শাসকদল আশ্রিত শিক্ষক ও ছাত্র সংগঠন গুলি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে 4নং গেটের সামনে জোরো হতে থাকে । এই পরিস্থিতিতে প্রশাসনের পক্ষে বিশাল সংখ্যক পুলিশ বাহিনী, কাঁদানে গ্যাস ও জল কামান নিয়ে প্রস্তুত যোধপুর পার্কে । এই চিত্র থেকে পরিস্কার হয়ে যায় যে রাজ্যের শাসকদল ও বাম দল গুলি বি জে পি তথা তাদের সকল সংগঠন গুলির উত্থানে বেশ চিন্তিত । এখন দেখার প্রশাসনের পক্ষে কি ভুমিকা গ্রহন করে । এ ভি বি পি'র মিছিল বেলা ১টায় শুরু হয়ে যোধপুর পার্কে পৌছানোর পর পুলিশের এল্যুমুনিয়াম ব্যারিক্যাডে আটকে যেতে পুলিশের সাথে ধস্তাধস্তি হয় এ ভি বি পি'র সাথে । পুলিশ সুত্রের খবর কয়েকজন পুলিশ আহত হয়েছেন বলে শোনা যাচ্ছে । এই মুহুর্তে এ ভি বি পি কর্মীরা ব্যারিকেডের সামনে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করে । অবস্থান বিক্ষোভে বিভিন্ন বক্তা বক্তব্যের পর কর্মসুচী'র সমাপ্তি করে এ ভি বি পি । সুত্রের খবর ওদিকে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে বাম সংগঠন গুলি এখনো অচল করে রেখেছে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর ।এমন কি এই দিন বিশ্ববিদ্যালয়ে বাবুল সুপ্রিয়'র উপর যে চিহ্নিত হামলাকারী ছাত্র দেবাঞ্জন বল্লব চ্যাটার্জী স্বীকারোক্তি দেয়, যে উনি যা করেছেন নিজের আত্মরক্ষার্থে করেছেন এবং তিনি এই লড়াই থেকে পিছ পা হবেন না ।