ব্যালট বাক্সে হুজুরের মার পড়বে সেদিন বুঝবেন উনি, মুকুল রায়

ballot box, he will understand that day, Mukul Roy
মুকুল রায়

আজবাংলা অশোকনগর  শনিবার অশোকনগরের সেনডাঙ্গা স্কুল মাঠে বিজেপির ডাকে স্বচ্ছ অভিযানে যোগ দিয়ে বক্তব্য রাখতে গিয়ে  তৃণমূল দল ও দলনেত্রীকে তুলোধনা করে বিজেপি নেতা মুকুল রায় বলেন দুর্গা পুজো নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নতুন খেলা শুরু করেছেন। সেজন্য দুর্গা পুজোর বিজয়ার দিন রেড রোডে প্রসেশান শুরু করেছেন। আসলে ভোটে কয়েকটি জায়গায় তৃণমূলের হিসাব ওলটপালট হয়ে যাচ্ছে। তা বলি হুজুরের মার তো দেখেননি। যেদিন ব্যালট বাক্সে হুজুরের মার পড়বে সেদিন বুঝবেন উনি”  স্বচ্ছ অভিযানে ঝাঁটা হতে মুকুল রায় কে দেখে উত্‍সাহী হয়ে ওঠে বিজেপি কর্মীরা। পরে মঞ্চে উঠে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর নামে একাধিক অভিযোগ তোলেন তিনি। প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত আক্রমনার্থক ভূমিকায় ছিলেন এদিন তিনি। ২০১৯ লোকসভা ভোটের লক্ষেই ছিল তার বক্তব্য। সরকারের কাছে যুবকরা কাজ চায়। এই সরকারের আমলে একটিও চাকরি হয়নি। অশোকনগরের কোনও যুবক যদি বলতে পারেন তিনি চাকরি পেয়েছেন তবে আমি রাজনীতি ছেড়ে দেব”। এদিনের মঞ্চ থেকে হাজারেরও বেশী মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ মুকুল রায় এর হাত থেকে বিজেপির পতাকা তুলে নিয়ে যোগ দেন বিজেপিতে।রাজ্যে নারীরা অরক্ষিত বলে অভিযোগ তুলে তিনি বলেন, নিজে একজন মহিলা মুখ্যমন্ত্রী হয়েও রাজ্য আজ নারী নির্যাতনে দেশের ভিতরে দ্বিতীয়। বামেরা যদি বাংলাকে ত্রিশ বছর পিছিয়ে থাকে তবে তৃণমূল কংগ্রেস বাংলাকে একশো বছর পিছিয়ে দিয়েছে। পুজোর অনুদানের বিষয়ে উল্লেখ করে বলেন, মানুষ ইমাম ভাতা চায় না। সরকারের থেকে দুর্গা পুজোর অনুদান চায়না।