ভিসার মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার পরও ভারতে থাকায় জরিমানা দিতে হল বাংলাদেশি ক্রিকেটারকে

আজবাংলা ভারতে থাকার ভিসার মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার পরও ভারতে থাকার ফলে শাস্তির মুখে পড়তে হল বাংলাদেশের ওপেনার সইফ হাসানকে। টেস্ট সিরিজের বিকল্প ওপেনার হিসেবে ভারতে এসেছিলেন সইফ। কিন্তু কোনও টেস্টেই তিনি খেলেননি। ইডেনে গোলাপি বলের টেস্টে চোটের জন্য ছিটকে গিয়েছিলেন তিনি। দলের সঙ্গেই কলকাতায় থেকে গিয়েছিলেন তিনি। বুঝতেই পারেননি যে তাঁর ছয় মাসের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছে।

ভারতের কাছে ইনিংস ও ৪৬ রানে হারের পর বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা একসঙ্গে দেশে ফেরেননি। কয়েকজন রবিবার রাতেই ফিরে যান। সইফ সহ বাকি ক্রিকেটারদের দেশে ফেরার কথা ছিল সোমবার কিন্তু, বিমানবন্দরে আটকে দেওয়া হয় তাঁকে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড পুরো দলেরই ভিসা ঠিক করেছিল। কিন্তু সইফের আগেই ভারতের ভিসা থাকায় তাঁকে বাদ দিয়ে বাকি দলের ভিসা করা হয়। তাঁর ভিসা ইস্যু করা হয়েছিল জুনে। কিন্তু সইফ ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড, কারওরই খেয়াল ছিল না যে সইফের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে এর মধ্যেই।শেষপর্যন্ত অতিরিক্ত সময় ভারতে থাকার জন্য ২১ হাজার ৬০০ টাকা জরিমানা দিতে হয় সইফকে। বাংলাদেশের ডেপুটি হাই কমিশনার তৌফিক হাসান বলেছেন, “হাসানের ভিসা দুই দিন আগেই শেষ হয়ে গিয়েছিল। আর এটা ও উপলব্ধি করে বিমানবন্দরে। ফলে ও বুকিং হওয়া ফ্লাইটে উঠতে পারেনি। বেশি সময় থাকার জন্য নতুন নিয়মে জরিমানা হয়েছে ওর। সৌভাগ্যবশত, ভারতীয় হাই কমিশন ওঁর ভিসার ব্যাপারে ক্লিয়ারেন্স দেওয়ায় বুধবার ও দেশে ফিরেছে বাংলাদেশের ওপেনার সইফ হাসান।”

এমন সমস্ত আপডেট পেতে লাইক দিন!