করোনাভাইরাস এর পূর্বে একটি গোটা গ্রাম ছিল করোনা গ্রাম নামে পরিচিত !!

আজ বাংলা :  সারা বিশ্বজুড়ে তোলপাড় চলছে করোনা ভাইরাস সংক্রামণের আতঙ্কে । ক্রমশ বেড়ে চলেছে পৃথিবীতে আক্রান্তের সংখ্যা মৃতের সংখ্যা এবং এর পরিবর্তে নেই কোনো প্রতিষেধক নেই কোন ওষুধ । অস্ট্রিয়া নামক দেশটিতে সর্বপ্রথম কোন আক্রান্ত মানুষ দেখা দিলেও একটা আস্ত করোনা নামক গ্রামে । সত্যিই অবাক হওয়ার মত একটি মন্তব্য ছিল এটা । কি আশ্চর্য ভাবে গ্রামটির নাম করোনা এবং সেই গ্রামটিতে এই সর্বপ্রথম আক্রান্ত হল মানুষ মনে করোনা ভাইরাসে । সম্প্রতি সেই গ্রামে এখন চলছে কোয়ারেন্টাইন অর্থাৎ সেই গ্রামের বাসিন্দা এখন বাড়িতে বন্ধ হয়ে রয়েছে ।অস্ট্রিয়াতে অবস্থিত আল্পস পর্বতের পাদদেশে এই গ্রামটির নাম হচ্ছে সেন্ট করোনা । গ্রামটির জনসংখ্যা খুব বেশি নয় প্রায়ই ৫০০ মতো জনসংখ্যা রয়েছে এই গ্রামটিতে । প্রথম যখন করোনাভাইরাস সংক্রমনের কথা উল্লেখ হয় তখন সেই গ্রামের বাসিন্দারা অনেকটাই ভয়ে ভীত হয়েছিলেন কারণ সেই ভাইরাসের নামের সাথে তাদের গ্রামের নাম হুবহু এক । তাই এই গ্রামের নাম পরিবর্তন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল গ্রামের মেয়র মাইকেল ।আসলে অস্ট্রেলিয়ার এই গ্রামটি একটি ছোট্ট পর্যটক কেন্দ্র বলা যেতে পারে কারণ সারা বছরই প্রায় বিভিন্ন অঞ্চল থেকে বিভিন্ন দেশ থেকে পর্যটকরা এই গ্রামটিতে ঘুরতে আসে । তাই এই গ্রামের মানুষদের জীবিকা অর্জন ওই পর্যটন শিল্প থেকেই হয় বলতে গেলে । তাই স্বাভাবিক ভাবেই একটি পর্যটক কেন্দ্রের নাম একটি মারণ রোগের ভাইরাস এর সাথে মিলে যাওয়ার ফলে গ্রামবাসীরা বেশ ভেঙে পড়ে । এছাড়াও এই গ্রামের বাসিন্দারা এই মহামারী রোগ করো না তে আক্রান্ত হতে শুরু করেছে । তাই খুব শীঘ্রই এই গ্রামের নাম বদল করা হবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে । এই রোগে আক্রান্ত হয়ে অস্ট্রিয়াতে মৃতের সংখ্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে প্রায় ৫৮ এবং আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ৭৩৩৯ জন।