ভুজঙ্গাসন Bhujangasana

ভুজঙ্গাসন Bhujangasana

 ভুজঙ্গাসন  bhujangasana, শরীর সুস্থ রাখার জন্য দেহে রোগ নিরাময় করা প্রয়োজন। আর রোগ নিরাময়ের সবচেয়ে ভালো কার্যকর উপায় হল যোগব্যায়াম। যোগা শুধু রোগ নিরাময়ই করে বরং শরীরে এনার্জি প্রদান করে। আর এই যোগাসনের মধ্যে একটি আসন হল ভুজঙ্গাসন। আজকে আমরা এই আসনটির সম্পর্কে আলোচনা করব। এই যোগাসনটি অভ্যাস করলে কি কি উপকার হয় এবং কীভাবে করবেন এই আসন।

এছাড়াও আপনাদের জানাব এই আসন করার কয়েকটি সতর্কতা।  ভুজঙ্গ শব্দটি সংস্কৃত ভাষা থেকে সৃষ্টি হয়েছে। ভুজঙ্গ কথার মানে  সাপ এবং আসন মানে কোনও অবস্থা অথবা ভঙ্গিকে বোঝায়। অর্থাৎ ভুজঙ্গাসন কথার অর্থ সাপের ভঙ্গিতে আসন। ভুজঙ্গাসনকে ইংরেজিতে কোবরা পোজ বলা হয়।

সব আসনগুলির মধ্যে ভুজঙ্গাসন খুব জনপ্রিয় একটি আসন। এটি পিঠে ব্যথার রোগীদের জন্য খুব কার্যকর। পাশাপাশি মেরুদন্ড শক্তিশালী হয় এই আসন অভ্যাস করলে। এছাড়া নিয়মিত এই ভঙ্গিটি কাঁধ, হাত, কনুই, পিঠ, কিডনি এবং লিভার শক্তি লাভ করে এবং অনেক রোগ থেকে মুক্তি পায়।

পদ্ধতি: পা দু’টো সোজা করে সটান উপুড় হয়ে শুয়ে পড়ুন। পায়ের পাতার উপর দিকটা যতদূর সম্ভব মুড়ে মেঝেতে রাখতে হবে। দু’হাতের তালু উপুড় করে পাঁজরের কাছে দু’পাশে মেঝেতে রাখুন। এবার পা থেকে কোমর পর্যন্ত মেঝেতে রেখে হাতের তালুর উপর ভর দিয়ে মাথা যতদূর সম্ভব উপরে তুলুন এবং মাথাকে সাধ্যমত পেছনদিকে বাঁকিয়ে উপরের দিকে তাকান।

শ্বাস-প্রশ্বাস স্বাভাবিক রেখে ২০ সেঃ থেকে ৩০ সেঃ এ অবস্থায় থাকুন। এরপর আস্তে আস্তে মাথা ও বুক নামিয়ে উপুড় হয়ে শুয়ে পড়ুন। কিছুদিন অভ্যাসের পর হাতের তালুর উপর ভর না দিয়ে বুক ও মাথা উপরে তুলতে হবে। শুধু বুক ও পিঠের উপর জোর দিয়ে মাথা ও বুক উপরে রাখতে হবে এবং হাত দু’টো কাঁধ বরাবর তুলে উঁচু করে রাখতে হবে। এভাবে আসনটি ২ বার করুন এবং প্রয়োজনমতো শবাসনে বিশ্রাম নিন।

উপকারিতা: আসনটিতে ঘাঁড়, গলা, মুখ, বুক, পেট, পিঠ, কোমর ও মেরুদণ্ডের উপর প্রচণ্ড চাপ পড়ে বলে শরীরের ঐসব অঞ্চলের স্নায়ুতন্ত্র ও পেশী সতোজ ও সক্রিয় থাকে। মেরুদণ্ডের হাড়ের জোড় নমনীয় হয়। বাঁকা মেরুদণ্ড সোজা ও সরল হয়।

আসনটির সঙ্গে মেরুদণ্ড সামনের দিকে বাঁকানো যায় এমন আসন যেমন শশাঙ্গাসন, পদ-হস্তাসন বা ঐ জাতীয় কোন আসন অভ্যাস রাখলে স্পণ্ডিলাইসিস, স্লীপড ডিস্ক জাতীয় রোগ কোনদিন হতে পারে না। বুকের পেশী ও পাঁজরের হাড় বৃদ্ধিতে সাহায্য করে এবং বুক সুগঠিত হয়। হৃৎপিণ্ডের পেশী এবং ফুসফুসের বায়ুকোষ ও স্নায়ুজালের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

আরো পড়ুন      জীবনী  মন্দির দর্শন  ইতিহাস  ধর্ম  জেলা শহর   শেয়ার বাজার  কালীপূজা  যোগ ব্যায়াম  আজকের রাশিফল  পুজা পাঠ  দুর্গাপুজো ব্রত কথা   মিউচুয়াল ফান্ড  বিনিয়োগ  জ্যোতিষশাস্ত্র  টোটকা  লক্ষ্মী পূজা  ভ্রমণ  বার্ষিক রাশিফল  মাসিক রাশিফল  সাপ্তাহিক রাশিফল  আজ বিশেষ  রান্নাঘর  প্রাপ্তবয়স্ক  বাংলা পঞ্জিকা 

[ আরও পড়ুন বজ্রাসন ]