কুপিয়ে খুন করা হল তৃণমূলের প্রাক্তন পঞ্চায়েত প্রধানকে

কুপিয়ে খুন করা হল তৃণমূলের প্রাক্তন পঞ্চায়েত প্রধানকে
bishnupur ex tmc pradhan stabbed to death

আজ বাংলা       বিষ্ণুপুর থানার বেলিয়ারা গ্রামে তৃণমূলের প্রাক্তন পঞ্চায়েত প্রধানকে কুপিয়ে খুন করা হয়। গত হওয়া মানুষটির নাম বাবর আলী । খুনের আগে ও পরে বোমাবাজি  ও ভাঙচুর চালানো হয় মৃত্যুর ব্যাক্তির বাড়ীতে ও তৃণমূলের পার্টি অফিসে। তাছাড়াও দুই তরফ থেকেই বহু পার্টির কর্মীরা আহত হয়েছে।

শনিবার রাতে বাবর আলী বাড়ি বসে টিভি দেখছিল। তখনই হঠাৎ করে কিছু দুর্বৃত্তরা গ্রামে ঢোকে ও পার্টি অফিস ভাঙচুর করতে শুরু করে। বাবরের বাড়িতে বোমাবাজি করতে থাকাকালীন তিনি পালিয়ে ওনার প্রতিবেশী হাজী সাহেবের বাড়িতে আশ্রয় নেয়। কিন্তু পালিয়ে বাঁচাতে পারেনি। বাবরকে যখন বিষ্ণুপুর হাসপাতালে নিয়ে যেতেই তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়। রবিবার বাবরের পরিবার রহিম মণ্ডলের বিরুদ্ধে FIR অভিযোগ দাখিল করে।

বিষ্ণুপুর থানা মত ৫জনকে গ্রেপ্তার করে।রাস্তায় পালিশ টহল চলছে। মৃতের মেয়ে শিল্প খাতুন বলেন , “আমার বাবা ২০১৩ সল্ থেকে পাঁচ বছর উলিয়ারা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান ছিল। বর্তমান প্রধান ও তার  অনুগামীদের নানা অপকর্মের  প্রতিবাদ করায়  ওরা বাবাকে প্রায় হুমকি দিত।  দুদিন আগেও  ওরা বাবার উপর  হামলার চেষ্টা চালিয়েছিল। শনিবার বাবাকে নৃশংসভাবে খুন করা হয়।“  শ্যামা প্রাসাদ মুখার্জি, TMC’র বিষ্ণুপুর ব্লকের সভাপতি জানান, “বাবর যেহেতু পঞ্চায়েত অবৈধ কর্যকমে বাধা দিতো তাই তাকেই লক্ষ্য করা হল। আমরা এই বিষয়েটিকে মুখ্যমন্ত্রীর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জানিয়েছি।"