জম্মু-কাশ্মীর সীমান্তে গোলাবর্ষণ করছে পাকিস্তান, নিহত ৮ ভারতীয়

https://www.aajbangla.in/
জম্মু-কাশ্মীর সীমান্তে গোলাবর্ষণ

আজবাংলা  বৃহস্পতিবার থেকেই জম্মু-কাশ্মীর সীমান্তে গোলাবর্ষণ শুরু করে পাক সেনারা। পাল্টা জবাব দেয় জওয়ানরাও। শুক্রবার জম্মুর আর এস পুরা এবং আরনিয়া সেক্টরে পাক সেনার গোলাবর্ষণে মৃত্যু হয় এক বিএসএফ জওয়ান নিহত হন। চার জন গ্রামবাসী আহত হয়েছিলেন। পরে তাঁদের মৃত্যু হয়। পাক সেনার হামলা থেকে বাঁচাতে গ্রামবাসীদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। বন্ধ করে দেওয়া হয় সীমান্তলাগোয়া স্কুলগুলো। পাকিস্তান অবশ্য ভারত সীমান্তে হামলার কথা অস্বীকার করেছে।

এই ধরনের আরো খবর জানতে আমাদের ফেসবুক পাতায় লাইক করুন facebook

পাল্টা দাবি করেছে, কোনও রকম প্ররোচনা ছাড়াই ভারত তাদের সেনা ছাউনি ও গ্রাম লক্ষ্য করে গুলি ছুড়েছে। তাদের ছোড়া গুলিতে তিন শিশু-সহ ১০ পাক নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। পাকিস্তানের দাবিকে সম্পূর্ণ নস্যাত্ করেছে বিএসএফ। জম্মু ফ্রন্টিয়ারের বিএসএফের ইনস্পেক্টর জেনারেল রাম অবতার জানান, সীমান্তে যথেষ্ট উত্তেজনা রয়েছে। পাক সেনারা বেছে বেছে গ্রামগুলিকেই লক্ষ্য করে হামলা চালাচ্ছে। তবে ভারতীয় সেনাও যোগ্য জবাব দিচ্ছে। উত্তর কাশ্মীরে তিন জন পাকিস্তানি অনুপ্রবেশকারী ভারতে ঢোকার চেষ্টা করলে সেনার সঙ্গে গুলির লড়াই হয়। দু’পক্ষের গুলির লড়াইয়ে ওই তিন অনুপ্রবেশকারীর মৃত্যু। জম্মু-কাশ্মীরে আসছেন প্রধানমন্ত্রী। তার আগে নিরাপত্তায় কোনওরকম খামতি রাখতে চাইছে না প্রশাসন। জম্মু-কাশ্মীর জুড়ে জারি রেড অ্যালার্ট। শ্রীনগরের সের-ই কাশ্মীর ইন্টারন্যাশনাল কনভোকেশন সেন্টারে বেশ কয়েকটি প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন মোদী। সের-ই কাশ্মীর ইন্টারন্যাশনাল কনভোকেশন সেন্টার (এসকেআইসিসি)-র বাইরে ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর সফরের মধ্যেই শান্তিপূর্ণ মিছিলের ডাক দিয়েছে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা।