পণের দাবিতে এক গৃহবধূকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টার

burn a housewife in demand
গৃহবধূকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টার

আজবাংলা মালদা, পণের দাবিতে এক গৃহবধূকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টার অভিযোগ উঠল স্বামী, শ্বশুর ও ননদের বিরুদ্ধে।  ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার দুপুরে বামন গোলা থানার ডাঙ্গাপাড়া এলাকায়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় গৃহবধূর চিকিৎসা চলছে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। অভিযুক্ত স্বামী, শ্বশুর ও ননদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে গৃহবধুর নাম সম্পা বিবি(১৯) গত ২ বছর আগে ইংরেজ বাজার থানার সাদুল্লা পুর এলাকার বাসিন্দা শম্পার সাথে বিয়ে হয় বামনগোলা থানার ডাঙ্গপাড়ার বাসিন্দা মাসিদুর রহমানের সাথে। পেশায় তিনি একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী।  তাদের ১০ মাসের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

 

গৃহবধূর বাবার বাড়ির লোকেদের অভিযোগ, কন্যা সন্তান হওয়ার পর থেকেই নানাভাবে অত্যাচার করা হত গৃহবধূর উপর।  মাঝেমধ্যেই অভিযুক্ত স্বামী মোটা টাকা পনের দাবি করতেন। এই নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে চলত অশান্তি। মাঝে মধ্যে স্ত্রীকে বাপের বাড়িতে রেখে যেতেন স্বামী বলে অভিযোগ। গত কয়েকদিন আগে বাপের বাড়ি থেকে শ্বশুর বাড়ি যায় শম্পা। অভিযোগ, আবারো বাপের বাড়ি থেকে টাকা নিয়ে যাওয়ার কথা বলে স্বামী মাসুদুর রহমান। টাকা নিয়ে যেতে অস্বীকার করলে গায়ে কেরোসিন তেল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় বলে অভিযোগ। এরপর গ্রামবাসীরা ওই গৃহবধূকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভরতি করে। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে স্থানান্তর করা হয় মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। বর্তমানে সেখানে চলছে তার চিকিৎসা। অভিযুক্ত স্বামী মাসিদুর রহমান,শ্বশুর হোসেন শেখ এবং ননদ নাসিমা বিবির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন গৃহবধূর বাবার বাড়ির লোকেরা। অভিযুক্তরা পলাতক। তবে কী কারণে এই ঘটনা ঘটেছে তা তদন্ত শুরু করেছে বামনগোলা থানার পুলিশ।