ভাইরাস মুক্ত করতে এইভাবে ধুচ্ছেন তো আপনার মাস্ক?

ভাইরাস মুক্ত করতে এইভাবে ধুচ্ছেন তো আপনার মাস্ক?
আজ বাংলাঃ   জামা কাপড় প্রসাধনীর মতো মাস্কও এখন আমাদের রোজকার জীবনের অংশ। রাস্তায় বেরোলে মাস্ক ছাড়া গতি নেই। আর মাস্ক না পরলেও বিপদ। অফিসে গিয়ে বসলেও হয়তো মাস্ক পরে থাকতে হচ্ছে আপনাকে৷ এই অবস্থায় রাস্তার ধুলো বালি সহ কত জীবাণুই না লেগে থাকছে মাস্কে। তাই এটা রোজ নিয়ম করে ধোয়ার কথা বলেছেন বিজ্ঞানীরা। এখন অনেকেই জিজ্ঞাসা করতে পারেন মাস্ক আবার কীভানে ধোবো? সাধারণ কোনও মাস্ক একবার ব্যবহার করাই ভালো। কিন্তু আমাদের অনেকের পক্ষেই তা সম্ভব না। তাই যে ধরণের মাস্ক আপনারা পরুন না কেন সেটা ভালো করে ধুয়ে নেবেন রোজ রোজ। কাপড়ের মাস্ক আপনি সাধারণ পোশাকের মতো ধুলে কোনও সমস্যা নেই। ডিটারজেন্ট- এর সঙ্গে মিশিয়ে ভালো করে কেচে নিতে হবে। এক লিটার জলে ৪ চা চামচ ব্লিচ মিশিয়ে সল্যুশন তৈরি করতে পারেন। আর আধ লিটার জলের জন্য ২ চা চামচ ব্লিচ মেশালেই হবে। মাস্ককে ৫ মিনিট ডুবিয়ে রাখতে হবে। তবে গরম জলের বদলে এক্ষেত্রে সাধারণ জল ব্যবহার করাই শ্রেয়। ওয়াশিং মেশিন থাকলে তাতে তাপমাত্রা হাই করে রাখুন। আর অন্য জামা প্যান্টের সঙ্গে মাস্ক ধোবেন না। এতে হিতে বিপরীত হতে পারে। সার্জিকাল মাস্কের ক্ষেত্রে একটু অন্য পদ্ধতি। ব্যবহৃত মাস্ককে পুনরায় ব্যবহারের আগে ৭২ ঘণ্টা কোনো নিরাপদ স্থানে ঝুলিয়ে রাখুন অথবা কাগজের ঠোঙায় রেখে দেওয়া সব থেকে ভালো। তবে ভুলেও প্লাস্টিকের ব্যাগ ব্যবহার করবেন না। এবং মাস্ক -এ স্যানিটাইজার স্প্রে করবেন না।