ATM থেকে টাকা লেনদেনের নিয়মে ৩০ জুনের পর বদল, জেনে নিন কি

আজবাংলা        দেশের অর্থমন্ত্রী ২৪ মার্চ বিশেষ ঘোষণা করেছিলেন ৷ যার জেরে এটিএম উইথড্রলের ক্ষেত্রে ৩ মাস অবধি সব চার্জ হাটিয়ে দেওয়া হয়েছিল ৷ অর্থমন্ত্রীর এই ঘোষণায় কার্ডহোল্ডাররা এই তিন মাস কোনও চার্জ ছাড়াই এটিএম থেকে যতবার খুশি যে কোনও এটিএম থেকে টাকা তুলতে পারছিলেন ৷ অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণের ঘোষণা অনুসারে সকলে যতগুলি ট্রানজাকশন খুশি করছিলেন ৷ এপ্রিল -মে-জুন এই তিন মাস এটিএম কার্ড হোল্ডাররা এই সুবিধা পেয়েছেন ৷ এবার এই পরিষেবা শেষ হতে চলেছে ৷ এই পরিষেবা আর বাড়ানোর কোনও নতুন নির্দেশিকা পাওয়া যায়নি ৷এর পাশাপাশি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে যে নূন্যতম টাকা রাখতে হয় এই তিন মাসের জন্য সেই নিয়মও লাঘব করে দিয়েছিলেন অর্থমন্ত্রী ৷ এর আগে ১১ মার্চ স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া এই নিয়ম তুলে দিয়েছিল ৷ অর্থমন্ত্রী জানিয়েছিলেন ডিজিটাল ট্রানজাকশন জারি রাখার জন্যেই এই সব সুবিধা দেওয়া হয়েছিল ৷স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া দেশের সবচেয়ে বড় ব্যাঙ্ক ১১  মার্চ নিজেদের বয়ান জারি করে জানিয়েছিল তাদের মোট ৪৪.৫১ কোটি সেভিংস অ্যাকাউন্টে নূন্যতম ব্যালান্স না রাখলেও কোনও চার্জ দিতে হবে না ৷ এর আগে এসবিআই মেট্রো শহরগুলিতে সেভিংস ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ৩০০০ টাকা রাখতে হত এছাড়া ছোট শহরে ও গ্রামে যথাক্রমে ২০০০ টাকা ও ১০০০ টাকা রাখতে হত ৷ নূন্যতম ব্যালেন্স না রাখলে এসবিআই ৫থেকে ১৫ টাকা জরিমানা নিত ৷এটিএমের আগের নিয়ম অনুসারে সাধারণত একমাসে এটিএম ব্যবহারের জন্য ৫ বার অবধি কোনও চার্জ দিতে হত না ৷ অর্থাৎ ট্রানজাকশনগুলি ফ্রি থাকত ৷ আর নিজের ব্যাঙ্কের বাইরে অন্য এটিএম ব্যবহার করলে তিনবার অবধি এটিএম ফ্রি -তে ব্যবহার করা যেত ৷ এই লিমিটের পর প্রতি ট্রানজাকশনে ৮ থেকে ২০ টাকা অতিরিক্ত নিত বিভিন্ন ব্যাঙ্ক ৷ এই চার্জ নির্ভর করে গ্রাহক কত টাকা তুলছেন বা জমা দিচ্ছেন তার ওপর৷