সিভিক ভলান্টিয়ারের বাড়িতে দুঃসাহসিক চুরি।

Civic Volunteer's home adventure
দুঃসাহসিক চুরি
আজবাংলা মালদা ; সিভিক ভলান্টিয়ারের বাড়িতে দুঃসাহসিক চুরি।গভীর রাতে বাড়ির সদস্যদের ঘর বন্ধ করে চলে চুরি।বাড়িতে থাকা নগদ টাকা,সহ গয়না নিয়ে চম্পট দেয় চোরের দল।ঘটনায় পরিবারের তরফ থেকে রতুয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।আতঙ্কিত এলাকাবাসী।চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে মালদার রতুয়া থানার বালুপুর এলাকায়। জানাগেছে, বালুপুর এলাকার বাসিন্দা কার্তিক লাল পোদ্দার।তিনি ও তার বড় ছেলে সন্দীপ পোদ্দার জুয়েলারী ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত।ছোটো ছেলে তপন পোদ্দার পেশায় সোভিক ভোলেন্টিয়ার।রতুয়া থানার অধীনে কর্মরত তিনি।পরিবার সূত্রে জানাগেছে, বাড়ির বড়ো ছেলে সন্দীপ পোদ্দার নিজ স্ত্রী সন্তানকে নিয়ে আত্মীয়ের বাড়ি গেছিলেন।এদিকে বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে পাহারায় কর্মরত ছিলেন ছোট ছেলে তপন পোদ্দার।বাড়িতে ছিলো কার্তিক লাল বাবু ও তার স্ত্রী এবং ছোট পুত্রবধূ।গভীর রাতে একদল চোর বাড়ির পেছনের দরজার তালা ভেঙে বাড়িতে প্রবেশ করে।যে ধরে বাড়ির সদস্যরা ঘুমিয়ে ছিলেন সেই ঘর বাইরে থেকে বন্ধ করে দেয় চোরের দল।তারপর অন্যান্য ঘর গুলিতে চালাতে থাকে লুটপাট।আলমারির লকার ভেঙে ৩২ হাজার টাকা নগদ সহ একাধিক সোনা চান্দির গহনা সহ দামি শাড়ি নিয়ে চম্পট দেয়।সব মিলিয়ে ৪ লক্ষ টাকার জিনিস নিয়ে চম্পট দিয়েছে চোরের দল বলেই জানান পরিবারের সদস্যরা। ভোর রাতে ফোন মারফত জানতে পেরে ছুটে আসেন দুই ছেলেই।সকাল হতেই রতুয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয় পরিবারের তরফে।রতুয়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে সমস্ত দিক ঘটিয়ে দেখে তদন্ত শুরু করেছে।তবে এখনো এই ঘটনায় করা জড়িত তাদের কোনো সন্ধান করতে সক্ষম হয়নি পুলিশ।