বাইরে কুস্তি, ভিতরে দোস্তি , রাফাল ইস্যুতে অস্বস্তিতে কংগ্রেস

Anil Ambani and Rahul Gandhi
অনিল আম্বানি ও রাহুল গান্ধী

আজবাংলা মঙ্গলবার অনিল আম্বানি তথা নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে নতুন করে রাফালে ইস্যুতে আক্রমণ শানান রাহুল গান্ধী। কংগ্রেস সভাপতি একটি ইমেলের কপি তুলে ধরে দাবি করেন, রাফালে চুক্তি সম্পর্কে আগে থেকেই জানতেন অনিল আম্বানি। জাতীয় নিরাপত্তার তোয়াক্কা না করে চরম গোপনীয় এই চুক্তির শর্ত আগে থেকেই আম্বানিদের জানিয়ে দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। পরে, কপিল সিব্বল নিজেও ওই ইমেলের কপিটি টুইটারে পোস্ট করেন। সুপ্রিম কোর্টের নামজাদা আইনজীবীদের মধ্যে অন্যতম কপিল সিব্বল। অনিল আম্বানির সংস্থা রিলায়েন্স কমিউনিকেশনের আইনি ব্যপারগুলি দীর্ঘদিন ধরেই দেখাশোনা করেন তিনি। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্ট আম্বানির সংস্থার বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার একটি মামলা চলছে। এরিকসন ইন্ডিয়া আম্বানির বিরুদ্ধে সাড়ে ৫০০ কোটি টাকার একটি মানহানির মামলা করে। সেই মামলায় রিলায়েন্সের হয়ে সওয়াল করছেন প্রাক্তন অ্যাটর্নি জেনারেল মুকুল রোহতগি এবং কপিল সিব্বল। প্রাক্তন আইনমন্ত্রীর এই দ্বৈত ভূমিকায় রীতিমতো অস্বস্তিতে কংগ্রেস। সোশ্যাল মিডিয়ায় হাসির ফোয়ারা উঠছে। রাজনৈতিক মহলেও হাসির খোরাক হচ্ছেন বর্ষীয়ান এই কংগ্রেস নেতা। কপিল সিব্বলের এই দ্বৈত ভূমিকায় রীতিমতো অস্বস্তিতে কংগ্রেস। রাফালে ইস্যুতে রাহুল গান্ধী দিনরাত অনিল আম্বানির মুণ্ডুপাত করে চলেছেন, কপিল সিব্বল নিজেও সোশ্যাল মিডিয়া তথা সংবাদমাধ্যমে রাফালে ইস্যুতে আম্বানিকে বিঁধছেন। ঠিক তখনই আবার সুপ্রিম কোর্টে সিব্বল সওয়াল করছেন রিলায়েন্সের কর্ণধারের হয়ে। প্রাক্তন আইনমন্ত্রীর এই দ্বৈত ভূমিকায় রীতিমতো অস্বস্তিতে কংগ্রেস। নেটদুনিয়ায় এ নিয়ে হাসাহাসিও হচ্ছে বাইরে কুস্তি, ভিতরে দোস্তি। সিব্বল এভাবে আম্বানির পক্ষ নিয়ে কংগ্রেসের জন্য রীতিমতো অস্বস্তি ডেকে এনেছেন। বিরোধীরা বলছেন, আম্বানিরা যদি দুর্নীতিগ্রস্তই হবেন, তাহলে সিব্বল তাদের হয়ে সওয়াল করছেন কেন?