বিধ্বংসী ঘূর্ণিঝড় বুলবুল প্রভাবে ৭ জেলায় স্কুল ছুটির বিজ্ঞপ্তি শিক্ষা দপ্তর

বুলবুল
বুলবুল

আজবাংলা বিধ্বংসী ঝড়ের তাণ্ডবের আশঙ্কায় এবার স্কুল ছুটির ঘোষণা করল রাজ্য শিক্ষা দপ্তর।বিজ্ঞপ্তি দিয়ে শিক্ষা দপ্তরের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আশঙ্কায় কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের সাত জেলায় শনিবার সব স্কুলে ছুটি ঘোষণা করল রাজ্য সরকার।দুই ২৪ পরগনা, দুই মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, হাওড়া ও কলকাতায় শনিবার সব প্রাথমিক স্কুল ছুটি থাকবে। ইতিমধ্যেই জেলায় জেলায় এই নির্দেশ পাঠিয়েও দিয়েছে দফতর।

পশ্চিমবঙ্গের সাগরদ্বীপ থেকে বাংলাদেশের খেপুপাড়ার মাঝে স্থলভাগের প্রবেশ করবে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। আজই শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় থেকে অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে বুলবুল।আবহাওয়া অফিস বলছে ঘূর্ণিঝড়টি এখন পর্যন্ত প্রবল বেগে বাংলাদেশ অভিমুখী। তবে এর গতিপথ ও তীব্রতা যেকোনো মুহূর্তে পরিবর্তন হয়ে পশ্চিমবঙ্গের দিকে সরে যেতে পারে। বাতাসের একটানা গতিবেগ এখন পর্যন্ত ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটার যা দমকা ও ঝড়ো হাওয়া আকারে ঘণ্টায় ১২০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পেতে পারে। সেইসঙ্গে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে।সমুদ্রের ঢেউ স্বাভাবিকের চেয়ে আরো পাঁচ থেকে সাত ফুট পর্যন্ত উঁচু হতে পারে। আন্দামান সাগর লাগোয়া পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরে ঘনীভূত হওয়া নিম্নচাপ ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড়ের চেহারা নিচ্ছে।বসিরহাট, সন্দেশখালি, হিঙ্গলগঞ্জে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিচ্ছে প্রশাসন। দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার উপকূলবর্তী এলাকাতেও জারি হয়েছে সতর্কতা। রাজ্যের সমস্ত উপকূল এলাকা কড়া সতর্কতা জারি হয়েছে। পর্যটন কেন্দ্রগুলিতে ইতিমধ্যেই কড়াকাড়ি শুরু ককেছে প্রশাসন। মত্‍স্যজীবীদের অবিলম্বে ফিরে আসার নির্দেশ পাঠানো হয়েছে। ইতিমধ্যেই দক্ষিণবঙ্গে আকাশের মুখ ভার।দিঘা-সহ উপকূলের সমস্ত এলাকাগুলিতেই সকাল থেকে মেঘলা আকাশ। ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট, সিভিল ডিফেন্স এর লোকজন দিঘা সহ উপকূলে সতর্কতামূলক টহল দিচ্ছে। বৃহস্পতিবার বিকেল থেকেই মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যাওয়ায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে প্রশাসন। এই মহুর্তে পর্যটকদের জন্য ফিরে যাওয়ার কোন সতর্ক বার্তা নেই। আবহাওয়া এখনও পর্যন্ত স্বাভাবিক রয়েছে। কোনও গুজব যাতে না ছড়ায় তারজন্য মাইকে প্রচার চলছে দিঘা, শঙ্করপুর, মন্দারমণিতে।  

এমন সমস্ত আপডেট পেতে লাইক দিন!