প্রাথমিকের শিক্ষক শিক্ষিকা দের ডিপ্লোমা-ইন এলিমেন্টারি এডুকেশন প্রশিক্ষণ

Diploma in Elementary Education Training
১০০ জন শিক্ষক-শিক্ষিকাগণ
Diploma in Elementary Education Training
১০০ জন শিক্ষক-শিক্ষিকাগণ

আজবাংলা দক্ষিণ দিনাজপুরঃ শনিবার দক্ষিণ দিনাজপুরের হিলি ব্লকে ব্লকের চালু হলো পার্সোনাল কন্ট্যাক্ট প্রোগ্রাম । হিলি ব্লকের বিভিন্ন শিশু শিক্ষা কেন্দ্র, মাধ্যমিক শিক্ষা কেন্দ্র, কেজি স্কু্‌ল, প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক-শিক্ষিকা গণদের দেওয়া হচ্ছে এই প্রশিক্ষণ । রাষ্ট্রীয় মুক্ত বিদ্যালয় শিক্ষা সংস্থান দ্বারা এই প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে বলে জানা গেছে । প্রাথমিক স্তরের শিক্ষক-শিক্ষিকাদের প্রশিক্ষিত করার জন্য এটি একটি ডিপ্লোমা কোর্স । হিলি ব্লকের ত্রিমোহীনি চন্দ্র প্রতাপ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং হিলি রমানাথ উচ্চ বিদ্যালয়ে এই শুরু হয়েছে । জানা গেছে, কেন্দ্রীয় সরকারের রাষ্ট্রীয় মুক্ত বিদ্যালয় শিক্ষা সংস্থান ( এন আই ও এস ) দ্বারা  রাজ্যের বিভিন্ন প্রাথমিক স্তরের যেসব শিক্ষক শিক্ষিকা গন এখনো পর্যন্ত ডিপ্লোমা-ইন এলিমেন্টারি এডুকেশন নিতে পারেননি তাদের প্রশিক্ষণ দেবার জন্য রাজ্য সরকারের উদ্যোগে এই প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে । ত্রিমোহনী প্রতাপচন্দ্র উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় এদিন প্রশিক্ষণ নিতে আসেন প্রায় ১০০ জন শিক্ষক-শিক্ষিকাগণ । যেখানে প্রাথমিক শিক্ষা সামাজিক ও কৃষ্টি মূলক দৃষ্টিভঙ্গি, শিক্ষা সংক্রান্ত প্রক্রিয়া , পরিবেশ বিদ্যা, গনিত শিখন সহ আরো অন্যান্য বিষয়ের উপর প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে । প্রশিক্ষণহীন শিক্ষক-শিক্ষিকাদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন বিদ্যালয়ের  বিষয়গত রিসোর্স পার্সনরা । চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকে এই প্রশিক্ষণ শুরু হলেও চলবে দু’বছর পর্যন্ত । দুবছরের প্রশিক্ষনে ৪টি সেমিস্টার বিভাগে রয়েছে । প্রতিটি সেমিস্টারে ১৫ টি ক্লাস ধার্য হয়েছে । প্রতি সপ্তাহের শনিবার ও রবিবার চলবে এই প্রশিক্ষণ । ত্রিমোহীনি  প্রতাপ চন্দ্র উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়েররিসোর্স পার্সন বিমান কৃষ্ণ শীল এবং বলরাম ঘোষ জানান, শিক্ষকতা হলো এমন পেশা যেখানে ছাত্রদের ভালো গুণগুলোকে গঠনমূলক করে তুলে পথ দেখানো যায় এজন্য শিক্ষকদের উপলব্ধি ও দক্ষতার প্রয়োজন । এই দক্ষতা ও উপলব্ধি আসে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে । প্রাথমিক স্তরের প্রশিক্ষণহীন  শিক্ষক-শিক্ষিকাদের  ডিপ্লোমা-ইন এলিমেন্টারি এডুকেশন  খুবই গুরুত্বপূর্ণ ।  প্রশিক্ষণ নিতে আসা অতনু গোস্বামী ও রামপ্রসাদ চক্রবর্তী  জানান, কেন্দ্রীয় সরকারের রাষ্ট্রীয় মুক্ত বিদ্যালয় শিক্ষা সংস্থান দ্বারা পরিচালিত প্রশিক্ষণ অংশগ্রহণ করতে পেরে তারা খুব আপ্লুত ।  প্রশিক্ষণের মাধ্যমে উন্নত মানে উন্নীত হবার আশাবাদী তারা ।  ত্রিমোহীনি প্রতাপচন্দ্র উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক কমল কুমার জৈন জানান,  রাজ্য সরকারের শিক্ষা দফতরের উদ্যোগে বিদ্যালয়ের  রিসোর্স পার্সন দ্বারা এই প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে । প্রশিক্ষণ দ্বারা  শিক্ষাক্ষেত্রে সামাজিক গুরুত্ব এতে বৃদ্ধি পাবে বলে তিনি আশাবাদী ।