বাড়ির থেকে দূরে রাখুন 'বাস্তু বিরোধী' এই জিনিসগুলো, জানুন বিস্তারিত

বাড়ির থেকে দূরে রাখুন 'বাস্তু বিরোধী' এই জিনিসগুলো, জানুন বিস্তারিত

আজবাংলা   বর্তমান সময়ে কেউ বাড়িঘর বানিয়েই থাকতে শুরু করে দেন না কিন্তু। সবাই বাড়ির তৈরির পর ঘরটাকে সাজিয়ে নেন। কেউ যদি লোন দিয়েও ঘর বা ফ্ল্যাট কেনেন তাহলেও তাঁর ঘর সাজানো চাই ই চাই। এখন তো আবার ঘর সাজানোর জন্য ব্যাংক থেকেও লোন দেওয়া হয়। তবে সে যাই হয়ে থাকুক, আমরা কিন্তু সবাই কমবেশি যে যার নিজের ঘরকে মনের মতন করে সাজাতে ভালবাসি।

কেউ ঘরের শোভা বাড়ানোর জন্য কার্পেট ব্যবহার করে থাকেন তো কেউ বা নান রঙবেরঙের পেইন্টিং। আবার অনেকে কাচের শোপিস থেকে শুরু করে নানা পাথরের মূর্তি, দেবদেবীর ছবি ইত্যাদি দিয়ে ঘরকে সাজিয়ে রাখেন।যারা আবার নিজেরা নিজেদের ঘর সাজাতে পারেন না, তাঁরা ইন্তেরিয়ার ডিজাইনের সাহায্য নিয়ে থাকেন।

তাঁরা কিছু টাকার বিনিময়ে আপনার ঘরকে আপনার মনের মতন করে সাজিয়ে ঘরের মনোরম পরিবেশ করে দেয়। তবে, কিছু কিছু ঘর সাজানোর জিনিস থেকে জীবনে নেমে আসতে পারে অন্ধকার। বিশিষ্ট জ্যোতিষগণ জানিয়েছেন, বাস্তুশাস্ত্র কারনের জন্য এমনটা হতে পারে। যেমন- সিনথেটিক পেইন্ট, পেট্রোকেমিক্যাল-জাত দ্রব্য, ভারী কার্পেট।

এর পাশাপাশি এমন কিছু জিনিস আছে যার থেকে উচ্চ কম্পাঙ্কের চুম্বকীয় বিকিরণ হয় সেগুলি ঘর থেকে দূরে রাখুন। এই বিকিরণ শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক, এগুলো থেকে বেরনো গন্ধও স্বাস্থ্যের ক্ষতি করে।এক্ষেত্রে, প্লাস্টিকের বা সিনথেটিক পেন্টও মারাত্মক ক্ষতিকর, শ্বাসনিরোধক। আমাদের মুখে যদি প্লাস্টিক বেঁধে রাখা হয়, তাহলে আমাদের যেমন কষ্ট হয়, বাস্তুমতে ঠিক তেমনি ঘরে প্লাস্টিকের পেন্ট করালেও ঘরের কষ্ট হয়।

জ্যোতিষশাস্ত্র অনুযায়ী বাস্তু হল আমাদের 'তৃতীয় ত্বক'। চামড়ায় জমে থাকা ময়লার কারনে ঠিক যেমন অসুখ হয়, ঠিক তেমনই বাড়িতে ময়লা জমলে, পর্যাপ্ত হাওয়া চলাচল না করলেও মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়ে। এর পাশাপাশি কার্পেটেও নানা জীবাণু আসা যাওয়া শুরু করে। সবথেকে ভালো ঘর সাজানোর জন্য ব্যবহার করুন দড়ি বা প্রাকৃতিক জিনিস দিয়ে তৈরি হালকা ওজনের কার্পেট। তাহলে আপনি কিছুদিন অন্তর অন্তর পরিস্কার করে নিতে পারবেন।

বর্তমান সময়ে আমাদের এই জিনিসগুলি আমাদের আধুনিক জীবনের অঙ্গ হয়ে উঠেছে। খুব সহজে এগুলি ছেড়ে একেবারে জীবন চলা কঠিন। তবে ভয় পাবার কিছু নেই। সমস্যা থাকলে সমাধান ও আছে। এইসব বস্তুর বাজে প্রভাব কাটানোর জন্য আছে নানা পন্থা। যেমন- রবারের কোন জিনিস, পিস লিলি, গোল্ডেন পথস, ফিকাস। এর পাশাপাশি ঘর সাজানোর জন্য মুখোশের নির্বাচনেও সদাসচেতন থাকুন। এক্ষেত্রে, দেব-দেবীর মুখোশ শুভ, কিন্তু ভয়ানক মুখ বা রাক্ষসের মুখোশ বাড়িতে রাখা একদমই ঠিক নয়।