এবার বারাসাত থেকে মালদায় ফেরা পরযায়ী শ্রমিক করোনায় আক্রান্ত

আজবাংলা   মালদা:   এবার মালদায় থাবা বসালো করোনা,আক্রান্ত পরযায়ী শ্রমিক । করোনা আক্রান্ত ভিনরাজ্য ভেরত এক শ্রমিক। মালদহের মানিকচক থানার চৌকি মিরদাদপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের নাড়িদিয়ারা গ্রামের এই বছর ৪৭-এর এই শ্রমিকের নমুনা পাঠানো হয়েছিল মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ল্যাবে। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, পরীক্ষাভিত্তিক পজিটিভ ফলাফল এসেছে। যদিও এ ব্যাপারে স্বাস্থ্য ভবন এখনও কিছু জানায়নি।লকডাউনের আগে রাজ্যে ফিরলেও তাঁকে রাখা হয়েছিল মানিকচক কলেজের সরকারি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে। ওই ব্যক্তিকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে নিয়ে যাওয়ার জন্য মানিকচক কলেজের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পৌঁছেছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা।গত ১৭ এপ্রিল সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন বাংলার ১০টি জেলায় করোনা সংক্রমণ নেই।জানা গিয়েছে, মানিকচকের ওই শ্রমিক উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বারাসাতে শ্রমিকের কাজে গিয়েছিলেন। লকডাউনে সেখানে আটকে পড়েন তিনি। গত ২৪ এপ্রিল মালদায় মালদায় ফিরে কোয়ারান্টিন সেন্টারে ছিলেন। রবিবার মানিকচকের মোট ৯৪ জনের লালারস সংগ্রহ করা হয়। তাঁদের মধ্যে ওই শ্রমিকের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে।সেই ৯টি জেলা হল, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর, মালদা, বীরভূম, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া এবং পূর্ব বর্ধমান। তবে মুখ্যমন্ত্রী সতর্ক করে বলেছিলেন এতে আত্মসন্তুষ্টিতে ভুগলে চলবে না।এর মাঝে পূর্ব বর্ধমান থেকে করোনা আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হল মালদাও। জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, আক্রান্ত ব্যক্তির পরিবারের লোকজনকে কোয়ারেন্টাইনে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা হচ্ছে। এবং তাঁর সংস্পর্শে কারা এসেছেন তাঁদেরও খোঁজ শুরু হয়েছে। মালদায় প্রথম আক্রান্তে জেলা জুড়ে এখন আতঙ্ক।