গরমকালে এইভাবে জল পান করলে সহজেই রোগ থেকে মুক্তি পাবেন !

আজ বাংলা:  এবার আসতে চলেছে শীত কাটিয়ে সেই গরমকাল । যেই কালে মানুষ গরমে অতিষ্ঠ হয়ে ওঠে । রোদের তাপ ক্রমশ বাড়ছে। আরপিওতে প্রতিদিন যাদের বাইরে বেরোতে হয় তাদের তো একেবারে নাজেহাল অবস্থা । চিকিৎসকদের মতে গরম যত বেশি পড়ে ততো বারে শরীর খারাপের লক্ষণ এবং নানারকম রোগব্যাধি । তবে গবেষকদের মতে আমরা যদি নিজেদের দিকে একটু খেয়াল নেই যদি কিছু নিয়ম পালন করি তাহলে রোগ থেকে সহজেই মুক্তি পেতে পারবো।চিকিৎসকরা বলছে গরমকালে রোগ-ব্যাধি থেকে দূরে থাকতে প্রতি নিয়মিত বেশি করে ৮ থেকে ৯ লিটার জল পান করতে । কারণ গরমকালে আমাদের যেহেতু বেশি পরিমাণে ঘাম হয় তাই বেশিরভাগ আমাদের শরীরের জলটাই বা কোন জলজ পদার্থ তাদের মধ্যে দিয়ে বেরিয়ে যায় ফলে আমাদের শরীরে খুব স্বাভাবিকভাবেই জলের ঘাটতি দেখা দেয় আর জলের ঘাটতি হলে বিভিন্ন রোগব্যাধি আসবে তাই গরমকালে বেশি পরিমাণে জল খাওয়া উচিত যাতে আমাদের দেহে জলের কোন রকম ঘাটতি না ঘটে । তবে গরমকালে এই জল পান করার কিছু নিয়মাবলী রয়েছে যেরকম বাইরে থেকে ঘুরে এসে সঙ্গে সঙ্গেই যদি ফ্রিজের ঠান্ডা জল পান করা হয় তাহলে তা শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক তাই বাড়িতে এসে খানিকক্ষণ কেটে যাওয়ার পর শরীরকে একটু বিশ্রাম দিয়ে তারপরে জল পান করা উচিত এবং তা একেবারে ফ্রিজের সরাসরি ঠান্ডা জল তো কখনোই নয় । এবং প্রখর রোদে দাঁড়িয়ে ঘর্মাক্ত অবস্থায় কোল্ড ড্রিংস খাওয়া একদমই উচিত না কাল থেকে বাড়িতে এসে সঙ্গে সঙ্গে কোল্ড ড্রিংকস খাওয়া একদমই উচিত নয়। এর ফলে খুব সহজেই ঠান্ডা গরম লেগে যেতে পারে তার ফলে নানান রকম ভাইরাল ফিভার অ্যাপ করতে পারে আপনার শরীরের এবং সর্দি কাশি ইত্যাদি লক্ষণ দেখা দিতে পারে ।